সরকারি চাকরি: কেমন হবে বিষয়ভিত্তিক প্রস্তুতি ?

0
278

অভিজিৎ ব্যানার্জি

অনেক পরীক্ষার্থীকে বলতে শোনা যায়, তারা নির্দিষ্ট সময়ে সব প্রশ্নের উত্তর করতে পারেনি। এমনকী অনেক প্রশ্ন পড়ে শেষ করতে পারেনি। বিশেষ সমস্যা হয় অঙ্ক নিয়ে। অঙ্ক দ্রুত বুঝতে না পারার কারণে এটা হতে পারে। আর একটি কারণ হল শর্ট কাট পদ্ধতি অনুসরণ না করা। অঙ্কের ক্ষেত্রে শর্ট কাট পদ্ধতি অনুসরণ করতে না পারলে মোট সময় কখনও বাঁচানো সম্ভব না। শর্ট কাট পদ্ধতি মনে রাখার কৌশল হল, বারবার অনুসরণ করা। নিয়মিত ভাবে পদ্ধতিগুলো অনুসরণ করলে মুখস্থ হয়ে যাবে। অঙ্কের মতো বিষয়ে মুখস্থ করার কথা বলছি বলে অবাক লাগতে পারে। উত্তর হল – শর্ট কাট পদ্ধতি কোন কোন অঙ্কের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যাবে তা জানতে হবে। একটা পদ্ধতি অনেকগুলো অঙ্কের ক্ষেত্রে প্রয়োগ করা যায়, সেই অঙ্কগুলো বুঝতে হবে।

সাধারণ জ্ঞান বা জিকে মনে রাখার নিজস্ব কতগুলো পদ্ধতি পরীক্ষার্থীকে তৈরি করতে হবে। কোন কোন ঘটনা একই সালে ঘটেছে, সেগুলি মনে রাখার সুবিধার জন্য নিজস্ব চার্ট তৈরি করতে হবে। কিছু পড়াশোনা একেবারে নিজস্ব, যা এক জন পরীক্ষার্থীকে অন্যের থেকে আলাদা করবে।

বিজ্ঞাপন

সাম্প্রতিক ঘটনাবলী বা কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স জানার জন্য পরীক্ষার্থীকে দৈনিক সংবাদপত্র পড়তে হবে। সিনেমার খবরকেও ছোট করে দেখলে হবে না। সম্প্রতি আইবিপিএস–এর একটি পরীক্ষায় একটি হিন্দি সিনেমার চিত্রনাট্যকারের নাম জানতে চাওয়া হয়েছে। অতএব সব খবর পড়তে হবে। এমনকি একটি ভয়াবহ দুর্ঘটনার প্রশ্ন ডবলুবিসিএস-এ এসেছে।

পরীক্ষার্থী যদি দৈনিক সংবাদপত্র পড়ে, তা হলে সে খবরগুলো জানতে পারছে। তা ছাড়া মাসিক যে পত্রিকাগুলো চাকরির পরীক্ষার জন্য প্রকাশিত হয় তারও গ্রাহক হতে হবে। তা হলে দৈনিক সংবাদপত্র পড়ার পাশাপাশি মাসে মাসে সেই ঘটনাগুলো বারবার চর্চা হবে, এর ফলে সেগুলি স্মৃতিতে ধরে রাখার ক্ষেত্রে সাহায্য করবে।

কেবলমাত্র চাকরির পরীক্ষার খবর বের হয় এমন পত্রিকা (সাপ্তাহিক/পাক্ষিক) পরীক্ষার্থীকে পড়তেই হবে। একদম রুটিনমাফিক। এর জন্য সে আঞ্চলিক/ জেলা/রাজ্য গ্রন্থাগারের সাহায্য নিতে পারে। কারণ এখন এই গ্রন্থাগারগুলিতে কর্মসংস্থানের উপযোগী কিছু পত্র-পত্রিকা নেওয়া হয়। কিন্তু ব্যক্তিগত ভাবে তাকে কিছু পত্রপত্রিকা রুটিনমাফিক নিতে হবে।

বাজারে নানা ধরনের পত্রপত্রিকা আছে। যে ধরনের পরীক্ষাকে পরীক্ষার্থী বেছে নেবে, সেই অনুযায়ী তাকে পত্রিকা কিনতে হবে। বাংলা ভাষায় কিছু পত্রিকা আছে। তা ছাড়া ইংরাজিতে আলাদা কিছু বিশেষ পরীক্ষার বিশেষ পত্রিকা আছে। আইএএস  পরীক্ষা দেওয়ার ক্ষেত্রে যে রকম পত্রিকা পড়তে হবে, নিশ্চয় ব্যাঙ্কের পরীক্ষার ক্ষেত্রে তেমন পত্রিকা পড়লে চলবে না।

পরীক্ষার্থীর নিজের মান অনুযায়ী তার পরীক্ষা বেছে নেওয়া উচিত, না হলে শুধু পরিশ্রমই হবে, সাফল্য আসবে না।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here