ওয়েবডেস্ক: খেলা বেশ জমে উঠেছে, না?

এক দিকে যেমন শ্বশুরবাড়ির তীব্র আপত্তি এবং অশান্তিকে অগ্রাহ্য করেই টুকটাক নতুন প্রেমে ধরা দিচ্ছেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন, তেমনই ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুও সমানে পাল্লা দিয়ে যাচ্ছেন বলিউড তোলপাড় করা সব কাণ্ডে!

এই যেমন যে দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নিজের রাজ্য গুজরাত ভ্রমণে গিয়েছিলেন নেতানিয়াহু, সে দিন তাঁকে এক গাইয়ে-বাজিয়ে-নাচিয়ের দল সংবর্ধনা জানিয়েছিল সঞ্জয় লীলা বনসালি পরিচালিত ‘পদ্মাবৎ’ ছবির ‘ঘুমর’ গানের সঙ্গে নেচে! বুঝুন কাণ্ড! এক দিকে ‘ঘুমর’ গানের সঙ্গে ছাত্রীরা নাচায় মধ্যপ্রদেশের স্কুলে ভাঙচুর চালিয়েছে রাজপুত কর্নি সেনারা, অন্য দিকে নেতানিয়াহু সেই বিতর্কে থেকেও দিব্যি উপভোগ করছেন ব্যাপার-স্যাপার!

এখানেই শেষ নয়। সম্প্রতি যা করলেন ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী, তাকে তো নজিরবিহীন ঘটনা বলাই যায়! বিবাহিত প্রাক্তনদের যিনি মিলিয়ে দেন এক ছবির ফ্রেমে, তাকে অসাধ্য সাধন ছাড়া আর কী-ই বা বলা যায়! বিশেষ করে সেই প্রাক্তনরা যদি হন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন এবং বিবেক ওবেরয়।

আরও পড়ুন: নতুন ছবির জন্য ১০ কোটি দর হাঁকলেন ঐশ্বর্য, কী এমন করতে হবে তাঁকে?

হয়েছে কী, বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর সম্মানে ‘সালোম বলিউড’ নামে এক পার্টির আয়োজন হয়েছিল। অমিতাভ বচ্চন, অভিষেক বচ্চন, করণ জোহর, ইমতিয়াজ আলি, প্রসূন জোশীর মতো বলিউডের অনেক দিকপালই হাজির ছিলেন সেই অনুষ্ঠানে। আলবাত হাজির ছিলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন আর বিবেক ওবেরয়ও!

এখন, এ তো সবারই জানা যে সলমন খানের সঙ্গে প্রেমপর্ব শেষ হওয়ার পরে বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গে কিছুদিন ভাব-সাব চলেছিল বচ্চন বউমার! তবে সে তো অতীত! আর কে-ই বা হৃদয় খুঁড়ে বেদনা জাগাতে ভালোবাসেন! ফলে, সলমনকে যেমন নয়, তেমনই বিবেকেরও ধারে-কাছে আর ঘেঁষেননি ঐশ্বর্য। কোনো অনুষ্ঠানে দু’জনে হাজির থাকলেও দূর একেই এড়িয়ে যেতেন পরস্পরকে। এক সঙ্গে ছবি তোলার তো প্রশ্নই ওঠে না!

তবে এ বার তা আর হওয়ার জো রইল না! যখন বলিউডের হোমরা-চোমরাদের সঙ্গে একটা গ্রেলফি তুলতে চাইলেন খোদ নেতানিয়াহু। ফলে, হাসিমুখে এক ছবির ফ্রেমে ধরা দিতেই হল ঐশ্বর্য আর বিবেককে। নায়িকার ব্যাপারটা কেমন লাগল, তা হাসিমুখ দেখে বোঝার উপায় নেই! ওটা তো সৌজন্য, ঠিক যেমনটা বজায় রেখেছেন ছবিতে সিনিয়র আর জুনিয়র বচ্চনও!

আরও পড়ুন: আজও সলমনের হুমকিতে ভয় পান না, বুঝিয়ে দিলেন বচ্চন-বউমা!

যা হোক, সলমন খান কিন্তু দূরেই থেকে গেলেন! তিনি পার্টিতে কেন আমন্ত্রণ পাননি, সে এক রহস্য! তা কি মাথার উপর অনেকগুলো মামলার খাঁড়া ঝুলছে বলে?

কে জানে! শুধু এটুকুই জানা যে চলতি বছরের ইদেই পরস্পরের মুখোমুখি হতে চলেছেন তিনি ঐশ্বর্যর! একই তারিখে যে মুক্তি পাচ্ছে তাঁর ‘রেস ৩’ আর ঐশ্বর্যর ‘ফ্যানি খান’!

নারদ, নারদ!

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here