২০১৭-তেও অব্যাহত থাকবে চরম আবহাওয়া এবং মেরুপ্রদেশীয় তাপপ্রবাহ

0
250

জেনিভা: সারা বিশ্বের গড় তাপমাত্রার নিরিখে ২০১৬ ছিল উষ্ণতম বছর। মঙ্গলবার বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা (ডব্লিউএমও)-এর পক্ষ থেকে একটি বিবৃতিতে জানানো হয়েছে ২০১৭-তেও পৃথিবী জুড়ে অব্যাহত থাকবে চরম আবহাওয়া।

বিশ্ব জলবায়ু গবেষণা কর্মসূচির প্রধান ডেভিড কার্লসন এই প্রসঙ্গে জানিয়েছেন, “বর্তমানে আমরা এক অচেনা পৃথিবীতে বসবাস করছি। এল নিনো ছাড়াও প্রতি চার পাঁচ বছর অন্তর আরও উষ্ণ হচ্ছে পৃথিবীর আবহাওয়া”।

ডব্লিউএমও-এর পক্ষ থেকে সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে বিশ্ব জলবায়ু রিপোর্ট। সেই রিপোর্ট অনুযায়ী ২০১৬ সালের গড় তাপমাত্রা ছিল শিল্প-পূর্ববর্তী যুগের গড় তাপমাত্রার চেয়ে ১.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি। ২০১৫ সালের চেয়েও গড়ে ০.০৬ ডিগ্রি তাপমাত্রা বেড়েছিল ২০১৬-তে। সমুদ্রতলের তাপমাত্রার নিরিখেও উষ্ণতম বছর হিসেবে রেকর্ড করেছে ২০১৬। উত্তর মেরুর বরফ ক্রমাগত গলতে থাকায় বেড়েছে সমুদ্রের জলতল।

সুমেরু সাগর

 

বিশ্ব আবহাওয়া সংস্থা এই বিশ্ব উষ্ণায়নের জন্য দায়ী করছে গ্রিন হাউস গ্যাসের প্রভাবকে। সংস্থার প্রধান পেত্তেরি তালাসের মতে, “অত্যন্ত শক্তিশালী কম্পিউটারের মাধ্যমে দেখানো সম্ভব হয়েছে, মানুষের পরিবর্তিত অভ্যাস এবং জীবনযাত্রার সঙ্গে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রত্যক্ষ যোগ রয়েছে”।

২০১৬ সালে উত্তরমেরুতে যখন মধ্য শীত, সে সময়েও অন্তত তিন বার ওই অঞ্চলের গড় তাপমাত্রা গলনাঙ্কের কাছাকাছি পৌঁছে গিয়েছিল। বিজ্ঞানীরা বলছেন, গড় তাপমাত্রার এমন খামখেয়ালি পরিবর্তনের প্রভাব পড়ছে পৃথিবীর সব অঞ্চলেই। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা এবং সংলগ্ন অঞ্চল স্বাভাবিকের চেয়েও উষ্ণ থাকলেও, আরব পেনিনসুলা অঞ্চল, উত্তর আফ্রিকায় অস্বাভাবিক শীত পড়েছিল এ বছরের শুরুতেই।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here