অবসাদে ভুগছেন ৫ কোটিরও বেশি ভারতবাসী: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

0
124

নয়াদিল্লি: ২০১৫ সালে পৃথিবী জুড়ে যত আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে, তার দুই-তৃতীয়াংশই হয়েছে ভারতের মতো নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলিতে। আর আত্মহত্যার অন্যতম প্রধান কারণই হল অবসাদ। দুনিয়া জুড়ে মানুষের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে। ২০১৫ সালের পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে তৈরি হয়েছে এই রিপোর্ট। রিপোর্টের নাম ‘ডিপ্রেসন অ্যান্ড আদার কমন মেন্টাল ডিজঅর্ডার- গ্লোবাল হেলথ এস্টিমেটস’। রিপোর্টে বলা হয়েছে, দুনিয়া জুড়ে ৩২ কোটি ২০ লক্ষ মানুষ অবসাদে ভুগছেন। তাঁদের মধ্যে প্রায় অর্ধেকই বাস করেন, দক্ষিণপূর্ব এশিয়া ও পশ্চিম প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে। এই দুই অঞ্চলেই রয়েছে দুনিয়ার সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যার দু’টি দেশ। ভারত ও চিন।

২০০৫ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে পৃথিবীতে অবসাদে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ১৮.৪% বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১৫ সালের তথ্য অনুসারে ভারতে অবসাদজনিত রোগে ভুগছেন ৫,৬৬,৭৫,৯৬৯ জন, যা মোট জনসংখ্যার ৪.৫%। অন্যদিকে উদ্বেগজনিত রোগে ভুগছেন ৩,৮৪,২৫,০৯৩ জন, যা ভারতের মোট জনসংখ্যা ৩%।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওই রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০১৫ সালে গোটা পৃথিবীতে আত্মহত্যায় মৃত্যু হয়েছে ৭,৮৮,০০০ জনের। আরও বহু মানুষ আত্মহত্যার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হয়েছেন। রিপোর্ট অনুযায়ী, দুনিয়া জুড়ে সে বছর যত মানুষের মৃত্যু হয়েছে, তার ১.৫%-এর কারণ আত্মহত্যা। এর ফলে আত্মহত্যা উঠে এসেছে মৃত্যুর প্রধান ২০টি কারণের মধ্যে। বিশেষত ১৫-২৯ বছর বয়সিদের মৃত্যুর কারণগুলির মধ্যে দ্বিতীয় স্থানেই রয়েছে আত্মহত্যা।

রিপোর্টে বলা হয়েছে, “২০১৫ সালে দুনিয়া জুড়ে যত আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে, তার ৭৮%-ই হয়েছে নিম্ন ও মধ্য আয়ের দেশগুলিতে”।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ২০১৪ সালের একটি রিপোর্টে বলা হয়েছিল, ২০১২ সালে আত্মহত্যায় শীর্ষে ছিল ভারত। পৃথিবীতে প্রতি ৪০ সেকেন্ডে ১ জন আত্মহত্যা করেন।

 মানুষ যে সব কারণে অক্ষম হয়ে পড়েন, সেগুলির মধ্যে প্রথম স্থানেই রয়েছে অবসাদ। দুনিয়া জুড়ে অসুখের বোঝা যে ভাবে বাড়ছে, তাতে অন্যতম প্রধান ভূমিকায় রয়েছে অবসাদ। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা হু (WHO)-এর মতে, মহিলারা পুরুষদের চেয়ে বেশি পরিমাণে অবসাদে আক্রান্ত হচ্ছেন এবং চূড়ান্ত পর্যায়ে সেই অবসাদই ডেকে আনছে আত্মহত্যা।    

 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here