শীতকালে সুস্থ, সুন্দর, সতেজ ত্বক পাওয়ার কিছু সহজ উপায়

0
942
আত্রেয়ী রায়

ঠান্ডা বাতাস ইতিমধ্যেই জানান দিয়েছে শীতের আগমনী বার্তা।ঋতু পরিবর্তনে তাই শুরু হয়েছে ত্বকের নানা সমস্যা। এ সময় ত্বক রুক্ষ ও অনুজ্জ্বল হয়ে যাওয়ায় দরকার একটু বাড়তি যত্নের। নিয়মিত যত্নে শীতেও ত্বক হয়ে উঠবে মসৃণ এবং স্বাস্থ্যোজ্জ্বল।

জেনে নিন শীত কালে ত্বকের যত্ন নেওয়ার কিছু সহজ উপায় –

নিয়মিত ত্বক ময়েশ্চারাইজ করুন

শীতে ত্বকের যত্ন নিতে প্রথমেই  একটি ভালো ময়েশ্চারাইজার বেছে নিন। বাদাম তেল বা এভাকাডো সম্বৃদ্ধ ময়েশ্চারাইজার কিনুন। এগুলো ত্বকের স্বাভাবিক আর্দ্রতা বজায় রাখতে সাহায্য করবে। প্রতিদিন অন্তত দুবার অথবা যতবার ত্বক শুষ্ক মনে হবে ততবার ব্যবহার করুন।

সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার

শীতকালে অনেকেই মনে করেন সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহারের প্রয়োজন নেই। এটি খুবই ভুল ধারণা। শীতকালেও সূর্যরশ্মি আপনার ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। তাই বাইরে বের হওয়ার ৩০ মিনিট আগে এসপিএফ ১৫-৩০ সম্পন্ন সানস্ক্রিন ক্রিম ব্যবহার করুন।

অতিরিক্ত গরম জল ব্যবহার করবেন না

স্নানের সময় আরাম অনুভব হলেও অতিরিক্ত গরম জল দিয়ে মুখ, মাথা ধোয়া থেকে বিরত থাকার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা।তাঁরা বলেন, অতিরিক্ত গরম জল ত্বকের কোষকে ক্ষতিগ্রস্ত করে। এর ফলে ত্বকের আর্দ্রতা নষ্ট হয়। হাল্কা গরম জলে স্নান করুন এবং স্নানের সময় জলে কয়েক ফোঁটা জোজোবা বা বাদাম তেল দিয়ে দিন। এটি ত্বককে আর্দ্র এবং মসৃণ করতে সহায়তা করে।

আরও পড়ুন: স্তন্যপান করানোরও নিয়মকানুন হয়, তা জেনে রাখাই ভালো

ভেজা অবস্থায় ত্বকের পরিচর্যা করুন

স্নানের পর এবং প্রতিবার মুখ ধোয়ার পর ভেজা অবস্থায় ময়েশ্চারাইজার বা লোশন ব্যবহার করুন। এতে ত্বকের আর্দ্রতা বজায় থাকবে।

ঠোঁটের পরিচর্যা

জিভ দিয়ে ঠোঁট চাটবেন না।এতে ঠোঁট বেশি ফাটে। লিপ বাম ব্যবহার করুন। শীতকালে লিকুইড লিপস্টিক ব্যবহার করুন। রাত্রে শোয়ার আগে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল মধুর সঙ্গে মিশিয়ে ঠোঁটে লাগান। এতে ঠোঁট কখনোই ফেটে যাবে না।

হাত ও পায়ের যত্ন

হাত এবং পায়ের আর্দ্রতা ধরে রাখতে লোশন বা ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন। যদি আপনার ত্বক খুব শুষ্ক হয় তাহলে স্নানের আগে বডি অয়েল অবশ্যই ব্যবহার করবেন। এছাড়া যারা বাড়ির বিভিন্ন কাজকর্ম যেমন বাসনমাজা, জামাকাপড় কাঁচা ইত্যাদি করেন তারা অবশ্যই হ্যান্ড ক্রিম ব্যবহার করবেন, এতে আপনার হাতে শুষ্ক খরখরে ভাব আসবে না, আর থাকলেও চলে যাবে। রাতে শোয়ার আগে পা ধুয়ে ফুট ক্রিম লাগিয়ে মোজা পড়ে নিন। এতে আপনার পা হবে নরম এবং অবাঞ্ছিত দাগ ও ফাটল থেকেও মুক্তি পাবেন।

এসবের পাশাপাশি গুরুত্ব দিন খাওয়াদাওয়ার প্রতিও। সবুজ শাক-সবজি ও ফলমূল খাওয়ার অভ্যাস করুন। এছাড়া শরীরের ভেতরের আর্দ্রতা ধরে রাখতে প্রচুর জল পান করুন।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here