সাবর্ণ সংগ্রহশালায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে ১৩তম আন্তর্জাতিক ইতিহাস উৎসব

0
247
sabarna sanggrahashala
papiya mitra
পাপিয়া মিত্র

ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় শুধু একজন কৌতুক অভিনেতাই ছিলেন না, ছোটো থেকেই তাঁর জীবনসংগ্রাম ছিল দৃষ্টান্তস্বরূপ। তাঁর সেই জীবনসংগ্রামের সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছিল স্বাধীনতা সংগ্রাম। কী ভাবে? সেটাই তুলে ধরা হবে সাবর্ণ রায়চৌধুরী পরিবার পরিষদ আয়োজিত ১৩তম আন্তর্জাতিক ইতিহাস উৎসবে। এ বারে এই উৎসবে প্রদর্শনীর মূল থিম ‘ভানু বন্দ্যোপাধ্যায় রেট্রস্পেকটিভ’। সেই প্রদর্শনীতে রাখা হবে ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়ের সারা জীবনের ব্যবহৃত নানা জিনিস।

প্রতি বারের মতো এ বারেও সাবর্ণ রায়চৌধুরী পরিবার পরিষদ আয়োজিত ইতিহাস উৎসব (ইন্টারন্যাশনাল হিস্ট্রি অ্যান্ড হেরিটেজ একজিবিশন) অনুষ্ঠিত হতে চলেছে সাবর্ণ সংগ্রহশালায়, বড়িশার বড়বাড়ি, ‘সপ্তর্ষি ভবনে’। চলবে ৪ ফেব্রুয়ারি থেকে ৭ ফেব্রুয়ারি। সময় সকাল দশটা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত।

international history festivalএই প্রদর্শনীতে পাশাপাশি থাকবে সাবর্ণ পরিবারে কোনো না কোনো সময়ে দেওয়া রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, নজরুল ইসলাম থেকে শুরু করে অন্নদাশংকর রায়, প্রেমেন্দ্র মিত্রের নানা চিঠি। থাকছে বাংলার টেরাকোটা। এখানেই শেষ নয়, সাবর্ণ পরিবারে সপ্তদশ শতাব্দী থেকে বিংশ শতাব্দী পর্যন্ত মহিলাদের ব্যবহৃত গহনার নানা বাক্স।

বিজ্ঞাপন

নানা সম্ভারে সাজিয়ে তুলে সংগ্রহশালাটিকে জনসমক্ষে তুলে ধরার চেষ্টা করছেন রায়চৌধুরী পরিবারের ৩৫তম প্রজন্ম দেবর্ষি রায়চৌধুরী ও নবীনেরা। উদ্যোগ তাঁর হলেও উৎসাহ জুগিয়েছিলেন জ্যেঠিমা সুজাতা রায়চৌধুরী। উদ্দেশ্য, নতুন প্রজন্মের কাছে সংগ্রহশালার গুরুত্ব ও সেটিকে রক্ষা করার দায়িত্ববোধ। ২০১৪ থেকে বেছে নেওয়া হয়েছে নানা দেশের ঐতিহ্যকে। বাংলাদেশ, ভুটান, শ্রীলঙ্কা ও নেপালের পরে এ বার থাইল্যান্ড। থাইল্যান্ড কনস্যুলেট এ ব্যাপারে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। সংগ্রহশালার প্রদর্শনী দেখার আগেই চোখে পড়বে ভারতের ইতিহাস, কলকাতার ইতিহাস ও সাবর্ণ রায়চৌধুরী পরিবারের ইতিহাস। কারণ সেই সব ইতিহাস থাকবে প্রবেশপথের দুই প্রাচীরে।

সংগ্রহশালার এ বার নতুন সংযোজন ৬ বালিগঞ্জ প্লেসের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে একটি ফুড ফেস্টিভ্যাল। ওই খাদ্য উৎসবে সাবর্ণ রায়চৌধুরী পরিবারের কিছু গোপন রান্নার পদ থাকবে। যে হেতু এ বছর প্রদর্শনীর বয়স ১৩, তাই ১৩টি পদ থাকবে। খাদ্য উৎসব চলবে ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। স্থান, ৬ বালিগঞ্জ প্লেস।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here