সত্যিই কি ক্যানসারে মারা গিয়েছিলেন পাবলো নেরুদা? গবেষকরা নিশ্চিত নন

0
514
pablo neruda

ওয়েবডেস্ক: চিলের প্রবাদপ্রতিম কবি পাবলো নেরুদা কি ক্যানসারে মারা গিয়েছিলেন? এই ব্যাপারে নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছেন না আন্তর্জাতিক গবেষকরা।

১৯৭৩ সালের সেপ্টেম্বর, ৬৯ বছরে মৃত্যু হয় নেরুদার। প্রচার হয়ে যায় ক্যানসারে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। উল্লেখ্য, মৃত্যুর সপ্তাহ দুয়েক আগেই চিলের তৎকালীন প্রেসিডেন্ট তথা কমিউনিস্ট শাসক সালবেদর আয়েন্দকে ক্ষমতাচ্যুত করে সামরিক অভ্যুথানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেন অগুস্তো পিনোচেত। কমিউনিস্ট মনোভাবাপন্ন হিসেবেই পরিচিত ছিলেন নেরুদা।

নেরুদার গাড়িচালকের দাবি ছিল কোনো ভাবেই ক্যানসারে মারা যেতে পারেন না তিনি। বরং অসুস্থ নেরুদা যখন হাসপাতালে ছিলেন তখন নাকি হাসপাতালের বিছানায় তাঁকে বিষপ্রয়োগ করে পিনোচেতের এজেন্টরা। তবে ২০১৩ সালে যখন নেরুদার মৃতদেহ প্রকাশ্যে আনা হয়েছিল, তখন অবশ্য বিষক্রিয়ার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

স্প্যানিশ ফরেনসিক বিশেষজ্ঞ আউরেলিও লুনা বলেন, ল্যাবরেটরিতে কৃত্রিম ভাবে চাষ করা কোনো ব্যাকটেরিয়া প্রয়োগ করে সম্ভবত তাঁকে মারা হয়েছিল। তবে এই ব্যাপারে নিশ্চিত ফল জানা যাবে ছ’মাস থেকে এক বছরের মধ্যে।

নেরুদার মৃত্যুর কারণ হিসেবে প্রস্টেট ক্যান্সার দেখানো হলেও, লুনার মতে, পরীক্ষানিরীক্ষার মাধ্যমে দেখা গিয়েছে নেরুদা যখন মারা যান তখন কোনো ভাবে প্রস্টেট ক্যানসারে তাঁর মৃত্যু হতে পারে না। তাঁর কথায়, “নেরুদার মৃত্যু স্বাভাবিক কারণে হয়েছে নাকি তাঁকে মারা হয়েছে সে ব্যাপারে এখনই নিশ্চিত করে কিছু বলা যাবে না।”

১৯৭৩ থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত ১৭ বছর চিলি শাসন করেন পিনোচেত। অভিযোগ, এ সময়ে কয়েক হাজার বামপন্থী কর্মী এবং বিরোধী মতের লোকজনকে তিনি হত্যা করেন। তিনি ২০০৬ সালে ৯১ বছর বয়সে মারা যান।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here