ভারতেই সব চেয়ে বেশি ঘুষ দিতে হয়, বলছে সমীক্ষা

0
422

বার্লিন: দশের মধ্যে সাত জন ভারতবাসী ঘুষ দেন। এমনই জানা গিয়েছে দুর্নীতি বিরোধী আন্তর্জাতিক সংস্থা ‘ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল’-এর করা একটি সমীক্ষায়।

ভারত এবং চিন-সহ এশিয়া-প্যাসিফিক অঞ্চল বা দক্ষিণ এশিয়ার ষোলোটি দেশে এই সমীক্ষা করেছিল সংস্থাটি। মঙ্গলবার সেই রিপোর্টটি প্রকাশিত হয়। রিপোর্টে জানা গিয়েছে, যে কটা দেশে এই সমীক্ষা করা হয়েছিল তার মধ্যে ঘুষ দেওয়ার হার ভারতেই সব থেকে বেশি। উল্লেখ্য, ঘুষ দেওয়ার হার সব থেকে কম জাপানে। সেখানে যতজনের ওপর সমীক্ষা করা হয়েছিল তার মধ্যে মাত্র ০.২ শতাংশ মানুষ জানিয়েছেন তাঁরা ঘুষ দিয়েছেন।

ঘুষ দেওয়ার হারে ভারতের পরেই রয়েছে ভিয়েতনাম। সে দেশে গড়ে ৬৫ শতাংশ মানুষ ঘুষ দেন বলে জানা গিয়েছে। সংস্থাটির মতে, স্বাস্থ্যব্যবস্থা এবং পরিচয়পত্র সংক্রান্ত নথির জন্য সব থেকে বেশি ঘুষ দিয়েছেন ভারতবাসী। প্রায় ৫৯ শতাংশ মানুষ এই দু’টি পরিষেবা পাওয়ার জন্য ঘুষ দিয়েছেন। এর পরে রয়েছে শিক্ষাব্যবস্থা। এই পরিষেবার জন্য ঘুষ দিয়েছেন ৫৮ শতাংশ মানুষ।

তবে সরকারি পরিষেবা পাওয়ার জন্য ভারত এবং পাকিস্তানে ঘুষ দেন মূলত গরিব মানুষই। প্রায় ৭৩ শতাংশ। এর পরেই রয়েছে পাকিস্তান এবং থাইল্যান্ড। যথাক্রমে ৬৪ এবং ৪৬ শতাংশ। ছবিটা সম্পূর্ণ উলটো চিনে। সে দেশে ধনীরাই মূলত ঘুষ দেন।

ঘুষ সংক্রান্ত এই সমীক্ষায় অন্য একটি তথ্যও উঠে এসেছে। ভারতবাসীদের মতে, দেশের পুলিশবাহিনীই সব থেকে বেশি দুর্নীতিবাজ। যত জনের মধ্যে এই সমীক্ষা করা হয়েছে তার মধ্যে ৮৫ শতাংশ মানুষ মনে করেন পুলিশ ঘুষ নেন, অন্য দিকে ৭১ শতাংশ ভারতবাসীর মতে সব থেকে বেশি দুর্নীতিবাজ ধর্মগুরু। সমীক্ষা চালানো বাকি পনেরোটি দেশের নাগরিকদের মতে পুলিশই সব থেকে বেশি দুর্নীতিবাজ। ধর্মগুরুর সঙ্গে দুর্নীতির কোনো সম্পর্কই রাখেনি বাকি দেশের মানুষরা।

গত এক বছরে ভারতে দুর্নীতির পরিমাণ বেড়েছে এমনটি মনে করেন চল্লিশ শতাংশ মানুষ। তবে সংস্থাটির মতে বেশির ভাগ মানুষই জানিয়েছেন বর্তমান সরকারের আমলে দুর্নীতি কমার ব্যাপারে তারা আশাবাদী।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here