জলের দরে বাড়িতে বসেই করবেন নাকি ফুট স্পা?

0
116

ওয়েবডেস্ক: পুরো সপ্তাহ জুড়ে কাজ করার পর যখন একটা ছুটির দিন আসে তখন আর মনে হয় না ত্বকের যত্ন নিতে। মনে হয় সারাক্ষণ যদি পায়ের ওপর পা তুলে বসে থাকতে পারতেন,  কি ভালোই না হতো!

কিন্তু কাজের চাপে তার তো আর জো নেই! ছুটির দিনেও বাড়িতে থাকলে হাজার-একটা কাজ পড়েই যায়।

ব্যস্ত জীবনে কাজের ফাঁকে পার্লারে যেতে নিশ্চয়ই মন চায় না? তাই খুব সহজেই ঘরোয়া উপায়ে ফুট স্পা করেই দেখুন।

১। ফুট স্পা

ফুট স্পা করার কিন্তু এটা প্রথম ধাপ, সে আপনি বাড়িতেই করুন আর পার্লারেই। হালকা উষ্ণ গরম জলের মধ্যে ১৫-২০ মিনিট পা ভিজিয়ে বসে থাকুন। তার মধ্যে নারকেল তেল হোক বা অলিভ অয়েল ১০-১৫ ফোঁটা মিশিয়ে নিন।

আপনার পা ফোলার প্রবণতা যদি থাকে, তা হলে জলের মধ্যে পিপারমিন্ট অয়েল দিন। পিপারমিন্ট অয়েল না পেলে তা হলে আপনি ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েলও দিতে পারেন।

আর পা ব্যথা তাড়াতাড়ি সারাতে চাইলে লেমন অয়েল দিন। লেমন অয়েল না পেলে জলের মধ্যে বাদাম তেলও দিতে পারেন।

২। নখের যত্ন 

বাইরে রাস্তায় বেরোবেন অথচ পা পরিষ্কার থাকবে, এটা ভেবে থাকলে খুব ভুল। ধুলো-বালি পায়ের নখের মধ্যে ঢুকে একগাদা ময়লা জমবে এটা তো খুবই স্বাভাবিক। তাই নখ পরিষ্কার করা খুবই দরকারি কাজ।

হালকা উষ্ণ জলে ১০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। এর পরে ভালো করে মুছে নিন। এ বার নেল কাটার দিয়ে নখ কাটুন, আর নখ থেকে ব্রাশ দিয়ে ঘষে ভালো করে ময়লা বের করুন।

৩। ফুট ম্যাসাজ

ফুট স্পায়ের ক্ষেত্রে আগে পায়ের ম্যাসাজ নেওয়াটা কিন্তু খুবই  গুরুত্বপূর্ণ। পিউমিক স্টোন দিয়ে ঘষে ঘষে আপনার পায়ের মরা চামড়া তুলে ফেলুন। যদি পিউমিক স্টোন না পান তা হলে জামা-কাপড় কাচার যে ব্রাশগুলি থাকে, তা দিয়েও পায়ের পরিচর্যা করতে পারেন।

এর পর স্ক্রাব করতে পারেন। দোকান থেকে কেনা স্ক্রাবার যদি ব্যবহার করতে না চান, তা হলে বাড়িতেই বানিয়ে নিতে পারেন।

স্ক্রাবারের জন্য লাগবে ১টি কলা, মুসুর ডালের গুঁড়ো ২ চামচ। প্রথমে কলাটা স্ম্যাশ করে নিন। স্ম্যাশ করে রাখা কলার মধ্যে মুসুর ডালের গুঁড়ো মিশিয়ে স্ক্রাবার বানিয়ে নিন। এ বার পায়ে ভালো করে ঘষে ঘষে অনেকক্ষণ ম্যাসাজ করুন। দেখবেন পায়ের মরা চামড়া সব দূর হয়ে গেছে।

৪। ফুট মাস্ক

আপনি যদি মনে করেন বাড়িতে ফুট মাস্ক বানিয়ে নেবেন তাও করতে পারেন। আর পুরোটাই আপনার ওপরে নির্ভর করছে। যদি আপনি ঠিক ভাবে নিজের যত্ন নিতে পারেন তা হলে আপনার বয়স বেড়ে গেলেও দেখবেন আপনার ওপরে খুব তাড়াতাড়ি বার্ধক্যের ছাপ পড়বে না।

৩ চামচ ওটস, ময়দা ২ চামচ, মধু ৩ চামচ, বাদাম তেল ১ ফোঁটা  একসাথে মিশিয়ে একটা মাস্ক বানান।

তারপর আপনার পায়ে আর গোড়ালিতে ২০-২৫ মিনিট লাগিয়ে রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে ম্যাসাজ করে আস্তে আস্তে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন পা কত ফ্রেশ লাগছে।

৭-১০ দিনের ব্যবধানে এইভাবে ফুট স্পা করে যান বাড়িতে বসেই। দেখবেন সারা সপ্তাহের যাবতীয় ক্লান্তি আর পায়ের ব্যথা কয়েক মিনিটেই ভ্যানিশ।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here