কী কাণ্ড! ছেঁড়া-ফাটা জিন্সের ফ্যাশন কি না পৌঁছে গেল এমন পর্যায়ে!

0
2755
jeans

ওয়েবডেস্ক: যা-ই বলুন, ঝকঝকে চকচকে জিন্স মোটেও কলকে পায় না ছেঁড়া-ফাটা জিন্সের কাছে!

পায়ের পাতার কাছে বা ঊরুতে খানিক ছেঁড়া থাকবে, বেরিয়ে আসবে সুতো, সঙ্গে রংটাও হবে ফ্যাকাশে- তবেই না জিন্সের বাহার খোলে! আদতে এ যে দিনমজুরের পোশাক! ফলে, অক্লান্ত পরিশ্রম আর ঘষামাজার মধ্যে দিয়ে গেলে যেমন হয়, তেমন ভাবেই দুনিয়া জয় করে নেয় ডেনিমের ফ্যাশন!

তা বলে ঊরুসন্ধির পুরোটাই অনাবৃত রাখা জিন্স? ঠিক যেমনটা দেখা যাচ্ছে উপরের ছবিতে?

fashion

চমকে গেলেও বাস্তবকে অস্বীকারের উপায় নেই। ফ্যাশনের নামে ইন্ডাস্ট্রি কত বিদঘুটে সব পোশাকই তো চাপিয়ে দিতে চায় ক্রেতার ঘাড়ে। উদাহরণ খোঁজার জন্য খুব বেশি পিছিয়ে যাওয়ারও প্রয়োজন নেই। ২০১৭-তে চোখ রাখলেই মনে পড়ে যাবে একটি বিশেষ ডেনিম জ্যাকেটের কথা। যার হাতা ছিল প্রয়োজনের চেয়ে কিছু বেশিই লম্বা, প্রায় পায়ের পাতা ছুঁই-ছুঁই! ঠিক যেমনটা দেখতে পাচ্ছেন উপরের ছবিতে!

fashion

অথবা, চোখ রাখা যেতে পারে ঠিক উপরের ছবির রবার দিয়ে তৈরি স্কার্টে! পরলে তা কতটা আরামদায়ক- সে প্রশ্ন আপাতত বৃথা। কেন না, জিনিসটা দেখেই টায়ার শিটের কথা মাথায় আসছে সবার, যেমনটা আর কী দেখা যায় গ্যারাজে! ফলে, এ নিয়েও সবাই প্রাথমিক ভাবে চমকে গেলেও পরে শুরু হয়েছিল হাহা-হিহির পালা!

তবে, নেটদুনিয়ার বিখ্যাত ফ্যাশন ব্র্যান্ড এএসওএস সম্প্রতি যে জিন্সের নমুনাটি তুলে ধরল জগৎ-সভায়, তা গুণে গুণে গোল দেবে সবাইকেই! ছেঁড়া-ফাটা জিন্সের ফ্যাশনকে একেবারে চরম পর্যায়ে নিয়ে গিয়ে ঊরুসন্ধির অঁশটুকু ছেঁটে বাদ দিল সংস্থা। যেমনটা দেখছেন ছবিতে, স্রেফ দুটে মেটাল চেন দিয়ে পরস্পরের সঙ্গে জুড়ে রয়েছে এই চমকে দেওয়া জিন্স!

আর, তা দেখার সঙ্গে সঙ্গে ফের দুনিয়ায় উঠেছে অট্টহাস্যের রোল! এক ক্রেতা এএসওএস-এর ওয়েবসাইটে উইন্ডো শপিং করতে গিয়ে প্রথম নমুনাটা দেখেন! তার পরেই তিনি এই ক্রচলেস জিন্সের ছবি টুইটারে শেয়ার করতেই আঁতকে উঠেছে দুনিয়া! সবার প্রথম কারণ হিসাবে রয়েছে এই ডিজাইন, দ্বিতীয়টা দাম- পাক্কা ৭৫ ইউরো! ভারতীয় মুদ্রায় ধরলে প্রায় ৫৭০৩ টাকা!

jeans

“এ বার কি গোপন অঙ্গ অনাবৃত করে ঘুরতে হবে?” ছবি দেখার পর টুইটারে প্রশ্ন তুলেছেন এক ব্যক্তি। আরেক জন তাঁর এক বন্ধুকে ট্যাগ করে এ হেন জিন্সের ছবি পোস্ট করেছেন, সঙ্গে লিখেছেন- “এই তুমি জ্ঞান হারাওনি তো? ঠিকঠাক আছো?”

jeans

পাশাপাশি সমালোচনা চলছে ডেনিম-জোড়ার দাম নিয়েও! “এএসওএস-এর চৈতন্য হোক”, কামনা করেছেন জনৈক টুইটারেতি। যাঁরা এতটাও উগ্র মতামত দিতে চান না সোশ্যাল মিডিয়ায়, তাঁদের দাবি- এত দাম দিয়ে এ রকম একটা জিনিস কিনে লোকসমক্ষে নিজেকে হাস্যকর করার কোনো অর্থই হয় না! একই সঙ্গে অনেকে সংস্থাকে বারণ করছেন পোশাক নিয়ে এ সব পরীক্ষা-নিরীক্ষা না করতে!

যদিও একটা কথা না বললেই নয়! মন চাইলে এই জিন্স পরা যেতেই পারে! শুধু সে ক্ষেত্রে অন্তর্বাসটা একটু সচেতন ভাবে বাছতে হবে- এই যা!

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here