অন্দরসজ্জা: কোনা-কথন

0
178

moitryমৈত্রী মজুমদার

ঘর  সাজানোর  সময়  আমরা  প্রায়শই  যেটা  ভুলে  যাই  বা  অবহেলা করি,  সেটা হল ঘরের কোনাগুলোর ব্যবহার। অনেক  সময়  হয়তো আপনাদের দ্বিধায় পড়তে হয় কোনাগুলোর সদ্ব্যবহারের উপায় ভাবতে গিয়ে আর অধিকাংশ সময় যেটা হয় সেটা হল ঘরের কোনাগুলো ভরে ওঠে অপ্রয়োজনীয় সামগ্রীতে।

তাই এ বার আমরা আলোচনা করব ঘরের কোনার উপযুক্ত ব্যবহার নিয়ে।

বিজ্ঞাপন

১। ঘরের কোনার সঠিক ব্যবহারের জন্য নিয়ে আসুন কর্নার ফার্নিচার। যেমন, কর্নার টেবিল, কর্নার বুকশেলফ, কর্নার সোফা ইত্যাদি। আর দেখতে দেখতে আপনার ঘরের কোনা অপ্রয়োজনীয় থেকে হয়ে উঠবে প্রয়োজনীয়।

২। বেড রুমের কোনায় একটি সাজানো বেডসাইড টেবিল একই সাথে হয়ে উঠতে পারে স্টোরেজ কাম ডেকরেটিভ পিস। kona2

আপনি যদি রাত জেগে কাজ করতে অভ্যস্ত হন তা হলে ঘরের একটি কোনা  ব্যবহার  করুন ‘ওয়ার্কিং জোন’ হিসেবে। kona1 যদি অন্যত্র জায়গা না থাকে তা হলে ঘরের কোনাটি ‘ড্রেসিং জোন’ হিসেবেও কাজে লাগাতে পারেন।kona2a

৩। বসার ঘরের ক্ষেত্রে ‘কর্নার ডেকর’ খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই এ ক্ষেত্রে যথাসম্ভব মনযোগী হওয়া উচিত। বসার ঘরের কোনাকে কাজে লাগাতে খুবই সুবিধাজনক বস্তুটি হল কর্নার সোফা।kona3 কিন্তু যদি আপনার সোফাটি সে রকম না হয় সে ক্ষেত্রে আপনি কোনায় রাখতে পারেন ইনডোর প্লান্ট। kona4

অথবা যদি আপনি গাছের যত্ন নেওয়ার পিছনে সময় দিতে না চান সে ক্ষেত্রে সোফার পাশে ঘরের কোনাটি সাজিয়ে তুলতে পারেন আপনার পছন্দের শো-পিসটি দিয়ে। প্রতিটি ক্ষেত্রেই কিন্তু ঘরের কোনার সজ্জাটি বাকি ঘরের অন্যান্য সজ্জার সাথে ভারসাম্য রেখেই করতে হবে। kona5

৪। আপনার বাড়ির যে কোনও ঘরের কোনায় যদি বড়সড় জানলা থাকে যা দিয়ে প্রচুর সূর্যালোক এবং প্রকৃতিকে ধরা যায় তা হলে একটি সিঙ্গল সিটার সোফা আর বুকশেলফ-এর সাহায্যেই কোনাটিকে অনতিবিলম্বে বানিয়ে ফেলুন রিডিং-নুক।

আপনি যদি খুব একটা বই ভক্ত না হন তাতেও কিছু যায় আসে না। বইয়ের তাকের বদলে দেওয়ালে কিছু ফটোফ্রেম আর ল্যাম্পশেডের সাহায্যে সাজিয়ে নিন কোনাটি আর সকাল সন্ধে এই জায়গাটি হয়ে উঠবে আপনার হলিডে স্পট।kona6

৫। এ ক্ষেত্রে বিন্দুমাত্র দ্বিধা না করে আপনার ছোট্ট বারান্দার কোনাটিকেও ব্যবহার করুন পুরো মাত্রায়। এ ক্ষেত্রে মাটিতে পেতে নিন ছোট গদি আর দেওয়ালে থাকল আপনার ভার্টিকাল গার্ডেন। kona7

মনের কোনায় যখন রোমান্সের উঁকিঝুঁকি তখন সাদামাটা কাঠের বেঞ্চও একটু চেষ্টায় হয়ে উঠতে পারে আপনার ‘হ্যাপি প্লেস’…। kona8

তা হলে আর দেরি কেন? আপনার ঘরের কোনায় কোনায় লাগুক আপনার কল্পনার জাদুকাঠির স্পর্শ আর আপনার মনের কোনায় কোনায় সুর বাজুক… ‘ভোরের  অন্তঃমিল নিশীথ জানে…’

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here