নতুন বছর, নতুন কাফে, কাছের মানুষটির সঙ্গে তৈরি হোক বিশেষ মুহূর্ত

0
1527
দেবপ্রিয়া মুখার্জি

দেখতে দেখতে শেষ হয়ে গেল আর একটা বছর। ২০১৮ সালকে স্বাগত জানিয়েছে শহরবাসী। এখনও চলছে উৎসবের রেশ। কিন্তু বছরের বাকি সময়টা? নির্জনে কাছের মানুষদের সঙ্গে সময় কাটিয়েই উদযাপন করতে চান নতুন বছরের প্রতিটা মুহূর্ত?
কিন্তু কোথায় গিয়ে সময় কাটাবেন? শহরের অনেক কাফেতেই তো ঘুরে এসেছেন এর মধ্যে! তাহলে?
নির্জনতা উপভোগ করতে বরং এই বছরে আপনার গন্তব্য হোক একটা ভালো ক্যাফেটেরিয়া। কলকাতার কয়েকটি মন ভালো করা ক্যাফেটেরিয়ার হদিশ দিতে হাজির খবর অনলাইন।

zucca lounge

জুকা লাউঞ্জ:

বিজ্ঞাপন

সাদার্ন অ্যাভিনিউর একটি অসাধারণ রুফটপ ক্যাফেটেরিয়াই হল ‘জুকা লাউঞ্জ’। এখানকার পরিবেশ আপনাকে পলকে রিফ্রেশড করে দেবে। মুখ মিষ্টি করতে এখানে রয়েছে চকো লাভা, স্ট্রবেরি উইথ পান্না কোটা, পার্ক চকোলেট এক্সপ্লোশন, ব্রাউনি সানডে, নানা ফ্লেভারের শেক ইত্যাদি। মেনকোর্সে রয়েছে হাক্কা এবং প্যান ফ্রায়েড নুডলের সঙ্গে চিকেনের নানা রকমের আইটেম- গ্রিলড চিকেন স্কিউয়ার্স, গ্রিন চিলি চিকেন, লেমন হানি জিঞ্জার চিকেন, চিকেন মোজারেলা ওলিভেতি ইত্যাদি। এছাড়াও রয়েছে ব্রুসেতা, পিৎজা, পাস্তা, স্যান্ডউইচ, তন্দুর প্ল্যাটার, স্যুপ এবং স্যালাডের একাধিক প্রিপারেশন। এখানে গেলে আপনার খরচ হবে দু’জনের জন্যে প্রায় ১০০০ টাকা।

calcutta64

ক্যালকাটা সিক্সটিফোর:

পকেটের কথা মাথায় রেখে যদি আপনি ক্যাফেটেরিয়া বাছাই করতে চান তাহলে আপনি যেতেই পারেন সল্টলেক সেক্টর এক-এর ‘ক্যালকাটা সিক্সটিফোর’-এ। এখানে দু’জনের জন্য খরচ প্রায় ৪৫০ টাকা। হট কফির মধ্যে আপনি পাবেন এসপ্রেসো, আমেরিকানো, মোকাচিয়াতো, ক্যাপুচিনো, আইরিশ ক্যাপুচিনো ইত্যাদি। মোকা ফ্রেপ, কোল্ড ল্যাটে, কোল্ড ক্যাপুচিনো, হেজেলনাট ফ্রেপ, ক্রাঞ্চি কোল্ড কফি ইত্যাদি মাউথ ওয়াটারিং কোল্ড কফি এখানে অ্যাভেলেবল। আর চায়ের দিকে যেতে চাইলে আসাম টি, অরেঞ্জ টি, মশালা টি, গ্রিন লেমন মিন্ট জিঞ্জার টি ইত্যাদির উষ্ণ চুমুক আপনাকে করে তুলবে তরতাজা। নানা ফ্লেভারের এসব চায়ের পাশাপাশি এখানে একাধিক ফ্লেভারের আইস টি-ও পেয়ে যাবেন, যেমন-অরেঞ্জ, পমগ্রেনেট, মোসাম্বি, লিচি, গ্রিন অ্যাপেল, কিউকাম্বার লাইম, স্ট্রবেরি ভ্যানিলা ইত্যাদি। এছাড়াও এখানে আপনি পেয়ে যাবেন স্যান্ডউইচ, বার্গার, থিন ক্রাস্ট পিৎজা, পাস্তা, স্যালাড, স্যুপ, মোমো এবং চিকেন, ফিশ, প্রনের বিভিন্ন ধরনের প্রিপারেশন। মকটেল, স্মুদি এবং জুসের মধ্যেও রয়েছে নানা অপশন। শেষে ডেসার্টে রয়েছে ম্যুস, ক্যারামেল কাস্টার্ড, সুইস পাই, ডবল চকোলেট ওয়ালনাট ব্রাউনি ইত্যাদি।

karma-kattle

কর্মা কেটল:

আপনি যদি নিখাদ চা-প্রেমী হন তাহলে এই বছরে আপনার গন্তব্যস্থল হোক বালিগঞ্জের ‘কর্মা কেটল’। ‘কর্মা কেটল’-এ চায়ের ভ্যারাইটির কোনো শেষ নেই। দেশ-বিদেশের প্রায় সমস্ত ধরনের, সমস্ত ফ্লেভারের চা এখানে অ্যাভেলেবল। আর চায়ের সঙ্গে টা হিসেবে রয়েছে বড়া পাও, পকোড়া, দই টিক্কি ইত্যাদি। শেষে সুইট ট্রিট হিসেবে আপনি পাবেন ওয়ার্ম অ্যাপল পাই, লেমন মারিঙ্গ টার্ট, কোকোনাট ম্যাকারন, চকোলেট ব্রাউনি ইত্যাদি। এখানে গেলে দু’জনের জন্য আপনাকে খরচ করতে হবে প্রায় ৬০০ টাকা।

coffee-o-kobita

ক্যাফে কফি ও কবিতা:

নতুন বছরটা যদি আপনি বাঙালি অ্যাম্বিয়েন্সে কাটাতে চান, তাহলে চলে যান শ্যামবাজারে ‘ক্যাফে কফি ও কবিতা’-য়। বাংলা সাহিত্য, বাংলা ছায়াছবির থিমে মোড়া এই ক্যাফেটেরিয়ায় চা-কফির সঙ্গে স্যান্ডউইচ, পিৎজা, কন্টিনেন্টাল প্ল্যাটার, ফিশ প্ল্যাটার, ওয়াফল, ডোনাট, কুকিজ ইত্যাদি সবকিছুই অ্যাভেলেবল। এখানে দু’জনের জন্যে খরচ প্রায় ৫০০ টাকা।

wake-up-cafe

ওয়েক আপ ক্যাফে:

শহর কলকাতার একটি সুন্দর নির্জন ক্যাফে হল গোলপার্কের ‘ওয়েক আপ ক্যাফে’। দু’জনের জন্যে এখানে খরচ ৫০০ টাকা। চা, কফির সঙ্গে ভার্জিন মোহিতো, পিনাকোলাডা, ফ্রুট পাঞ্চ, মার্গারিটা, চকোলেট মঙ্ক, ম্যাঙ্গো প্যাশন টুইস্ট, অরেঞ্জ ব্লসম ইত্যাদি নানা ফ্লেভারের মকটেলও পেয়ে যাবেন এখানে। শেকের মধ্যে রয়েছে ওরিও শেক, ব্রাউনি শেক, ব্লুবেরি শেক, ম্যাঙ্গো শেক, বানানা শেক ইত্যাদি। নানাধরনের স্যান্ডউইচ, বার্গারের পাশাপাশি রয়েছে চিকেন নাগেট, চিকেন পপকর্ন, চিকেন কাটলেট, ফিশ পপকর্ন ইত্যাদি। এছাড়াও এখানে বিভিন্ন ধরনের কম্বো মিলও অ্যাভেলেবল।

তাহলে নতুন বছরের মুহূর্তগুলো কোথায় উপভোগ করবেন বলে ঠিক করলেন? তালিকা থেকে বেছে নিয়ে বিশেষ কোনোটায়? না কি সুবিধে মতো এক এক করে ঢুঁ মারবেন সবকটাতেই?

যেখানে-ই যান, প্রিয়জনদের সঙ্গে কাটানো কিছু সুন্দর মুহূর্ত আপনার স্মৃতির স্যুটকেসে ভরে রাখতে পারবেন নিশ্চিত। ভালো থাকুন। হ্যাপি নিউ ইয়ার।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here