শুক্রবার আকাশে দেখুন পূর্ণ তুষার চন্দ্র, উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ আর ধুমকেতু

0
508

ওয়াশিংটন : শুক্রবার রাতে বিশ্ব সাক্ষী থাকতে চলেছে এক সঙ্গে একাধিক মহাজাগতিক ঘটনার। এক দিকে নজর কাড়বে পূর্ণ তুষার চন্দ্র, অন্য দিকে কাছ থেকে দেখা যাবে ধুমকেতু ৪৫পি আর দেখা যাবে উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ।  

শুক্রবার পূর্ণিমা মানে পূর্ণচন্দ্র দেখা যাবে এটা ক্যালেন্ডার দেখে যে কেউ ঠিকই বলে দিতে পারেন। কিন্তু ‘পূর্ণ তুষার চন্দ্র’ সেটা আবার কী?

সেটা হল শীতের মরসুমে পূর্ণিমার চাঁদ। চাঁদের এই নামকরণ করেছে আমেরিকার উপজাতি সম্প্রদায়। তারা প্রতি মাসের পূর্ণিমার চাঁদের একটা না একটা নাম দিয়েই থাকে। সেই মতোই এই মাসে চাঁদের নামকরণ করেছে ‘ফুল স্নো মুন’ অর্থাৎ ‘পূর্ণ তুষার চন্দ্র’। এই নামটা দেওয়ার কারণ হল এই বছরের সব থেকে বেশি তুষারপাত হয়েছে ফেব্রুয়ারি মাসেই। তাই ফেব্রুয়ারির পূর্ণিমার চাঁদের নাম এমনটাই রাখা ঠিক মনে করেছে তারা।

এ বার আসি ‘উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ’ প্রসঙ্গে। চন্দ্রগ্রহণ আমরা অনেকেই কমবেশি অনেক বার দেখেছি। কিন্তু উপচ্ছায়া কেন? কারণ, চন্দ্রগ্রহণ বা সূর্যগ্রহণের পেছনে যে কারণ তা হল ছায়াপাত। একের ছায়া অন্যের ওপর পড়লেই তখন সেটাকে অন্ধকার দেখায় আর তাকেই আমরা গ্রহণ হিসেবে জানি। ছায়া সরে গেলে গ্রহণ কেটে যায়। কিন্তু এই বারের ব্যাপারটা একটু আলাদা। এখানে পৃথিবীর ‘প্রচ্ছায়া’ মানে গাঢ় ছায়ার মধ্যে চাঁদ ঢুকে পড়বে না। পৃথিবীর হাল্কা ছায়া বা ‘উপচ্ছায়া’ অঞ্চলের মধ্যে দিয়েই চাঁদ ঘুরে যাবে। তাই পুরো চাঁদ নয়, চাঁদের খানিকটা অংশ হাল্কা ছায়া পাবে আর অল্প অন্ধকার দেখাবে। একেই বলে ‘উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণ’। এই গ্রহণ চলবে প্রায় চার ঘণ্টা। চাঁদ উপচ্ছায়া অঞ্চলে ঢুকবে ভারতীয় সময় অনুযায়ী ভোর ৪টে ২ মিনিটে আর সেখান থেকে বেরোবে সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, পূর্ব এশিয়ার দেশগুলি ছাড়া গোটা বিশ্ব থেকেই এই দৃশ্য দেখা যাবে।

p45

উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণের কয়েক ঘণ্টা পরেই ধুমকেতু ‘৪৫পি/হোন্ডা-মার্কোস-পাজদুসাকোভা’ মাঠে নামবে। এ দিন এই ধুমকেতুটি পৃথিবীর থেকে ৭৪ লক্ষ মাইল দূর দিয়ে যাবে। নাসার মহাকাশ বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, গত দু’ মাস ধরে সূর্যাস্তের পর আকাশে এই ধুমকেতুটি দেখা যাচ্ছে। এ দিন সকালের আকশে একে দেখা যাবে ‘হারকিউলিস নক্ষত্রমণ্ডলে’র দিকে। একে দেখতে গেলে লাগবে দূরবীন বা টেলিস্কোপ। এই ৪৫পি ধুমকেতুর সবুজ রঙের একটি লেজ আছে। নাসা জানিয়েছে, ২০২২ সালে ‘৪৫পি’ ধুমকেতুকে আবার দেখা যাবে।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here