রামপালে দ্বিতীয় পর্যায় তাপবিদ্যুৎ প্রকল্প বাতিল

0
88

রামপালে দ্বিতীয় পর্যায়ে কোনও কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি করবে না বাংলাদেশ সরকার। কয়লা বাদে অন্য কোনও উৎস থেকে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা যায় কিনা তা যাচাই করে দেখা চলছে বলে বাংলাদেশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ জানিয়েছেন।

rampal-protest
৩০ সেপ্টেম্বর, ঢাকা প্রেস ক্লাবের সামনে প্রতিবাদীরা। ছবি: ফেসবুক 

গত আগস্ট মাসে বাংলাদেশ সরকারকে দেওয়া ইউনেসকোর ৩০ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রথম পর্যায়ের জন্য যে পরিমাণ জল উত্তোলন করা হবে তা পরিবেশের ক্ষতি করবে। সরকার যদি দ্বিতীয় পর্যায়ে আরও একটি তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরি করে তবে বিপদ আরও বাড়বে। এই আশঙ্কা প্রকাশ করে রামপাল তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র বাতিলের সুপারিশ করে ইউনেসকো।

এর জবাবে ২৯ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ পরিবেশ ও বনমন্ত্রক। এই প্রতিবেদনে তাদের দাবি, ইউনেসকোর অধিকাংশ আশঙ্কাই সঠিক নয়। উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে রামপালে বিদ্যুৎকেন্দ্র তৈরি হবে। এর ফলে সুন্দরববের পরিবেশের কোনও ক্ষতির আশঙ্কা নেই।

রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের বিরুদ্ধে লাগাতার প্রতিবাদ জানাচ্ছে বেশ কয়েকটি গণসংগঠন। গত সপ্তাহেই এই বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রতিবাদে একটি সাইকেল মিছিল বের হয়। এই সাইকেল মিছিলের উপর পুলিশ লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। সুন্দরবন রক্ষা জাতীয় কমিটি জানিয়েছে, বিষয়টি নিয়ে সম্পূর্ণ তথ্য হাতে এলে তারা এ নিয়ে তাদের অবস্থান স্পষ্ট করবে।     

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here