দাদুর সানাই চুরি করে জেলে গেল বিসমিল্লাহর নাতি

0
84

বেনারস : দাদুর সানাই চুরি করে জেলে গেল নাতি। তবে এ সানাই যে-সে সানাই নয়, এ হল ‘পাগলা সানাই’। মালিক বিসমিল্লাহ খান। নাতির সঙ্গে ধরা পড়েছে দু’ জন স্বর্ণকার। এদের কাছেই মাত্র ১৭ হাজার টাকায় ওই সানাইগুলি বিক্রি করে দিয়েছিল গুণধর নাতি। রুপোয় বাঁধানো ওই সানাইগুলো ভেঙে বের করা এক কিলোগ্রাম রুপোও উদ্ধার করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের বিশেষ টাস্ক ফোর্স।

বিসমিল্লাহর রুপোয় বাঁধানো চারটি অমূল্য সানাই ছিল ছেলে কাজিম হুসেনের হেফাজতে। গত মাসে তাঁর বেনারসের বাড়ি থেকে সেগুলি চুরি যায়। পুলিশে খবর দেওয়া হয়। পুলিশের কর্মকর্তা এস আনন্দ জানান, গোড়া থেকেই সন্দেহ ছিল বাড়িরই কেউ এই চুরি করেছে। নজর রাখা হয়েছিল সকলের উপর। জেরা করা হয় পরিবারের সকলকে। শেষ পর্যন্ত উস্তাদজির নাতি নাজরে হাসান ওরফে সাদাব জেরায় ভেঙে পড়ে স্বীকার করে সে-ই চুরি করেছে। পুলিশের কাছে চুরির অভিযোগ করেছিলেন নাজরেরই বাবা কাজিম। এর আগেও বেনারসে বিসমিল্লাহের বাড়িতে তালা ভেঙে চুরি হয়েছে।

পুলিশ জানায়, কোনো কাজকর্ম করে না সাদাব। কোনো রোজগার নেই। শুধুমাত্র টাকার লোভে সানাইগুলো বিক্রি করে দিয়েছিল। এগুলো যে অমূল্য জাতীয় সম্পদ।      ওর ধারণায় ছিল না, ওই সানাইগুলোর দাম কত হতে পারে।

বিসমিল্লাহের পরিবার তাঁর বাদ্যযন্ত্র, পুরস্কার-সহ বিভিন্ন স্মরণিকা নিয়ে একটি সংগ্রহশালা গড়ার দাবি জানিয়ে আসছে দীর্ঘদিন ধরে।  

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here