সমস্যা পূরণে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর প্রতিশ্রুতি আদায় করলেন ‘পদ্মশ্রী’ করিমুল

0
123

নিজস্ব সংবাদদাতা, জলপাইগুড়ি : প্রত্যন্ত এলাকায় গিয়ে এমন এক মানুষের অভাব-অভিযোগ শুনলেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী, যাঁর কথা শোনার জন্য এত দিন কেউ ছিলেন না। প্রতিশ্রুতি দিলেন সমস্যা সমাধানেরও। কারণ এই প্রত্যন্ত প্রান্তের মানুষটি এখন ‘জাতীয় মুখ’। ‘পদ্মশ্রীর’ জন্য নির্বাচিত অ্যাম্বুলেন্স-দাদা করিমুল হক। ২৫ জানুয়ারি তাঁর নাম ঘোষণা হয় পদ্মশ্রীর জন্য। ‘মোটরবাইক-অ্যাম্বুলেন্স’ নিয়ে অসুস্থ রোগীদের বিনামুল্যে চিকিৎসা-পরিষেবা দিয়ে মানবিকতার যে দৃষ্টান্ত তিনি রেখেছেন, তাকে কুর্নিশ জানিয়েই কেন্দ্রীয় সরকারের এই সন্মাননা। 

রবিবার জলপাইগুড়ির প্রত্যন্ত ধলাবাড়ি গ্রামে করিমুলের বাড়িতে পৌঁছে যান কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী তথা দার্জিলিং-এর বিজেপি সাংসদ সুরেন্দ্রজিৎ সিং আলুওয়ালিয়া। করিমুল বাড়ি থেকে বেড়িয়ে আসতেই তাঁকে জড়িয়ে ধরেন প্রবীণ এই বিজেপি নেতা। করিমুলের ভাঙা বাড়িতে তখন এলাকার মানুষের উপচে পড়া ভিড়। ফুলের স্তবক, শাল দিয়ে তাঁকে সংবর্ধনা জানান মন্ত্রী । জানান, খোদ প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই তিনি এখানে এসেছেন। তখন সুযোগ পেয়ে মন্ত্রীর সামনেই এলাকার স্বাস্থ্যপরিষেবা সহ এক ঝাঁক সমস্যার কথা তুলে ধরেন করিমুল। পদ্মশ্রীর জন্য নির্বাচিত এই ‘অতি সাধারণ মানুষটির’ কথা মন দিয়ে শুনে, সংশ্লিষ্ট মহলে কথা বলে সমস্যা সমাধানের প্রতিশ্রুতিও দেন মন্ত্রীমশাই। এর মধ্যে রয়েছে এলাকার দু’টি ছোটো স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পরিকাঠামো ঠিক করা এবং স্থানীয় চেল নদীর ওপর সেতু নির্মাণ, যাতে অসুস্থ মানুষদের নিয়ে দ্রুত যাতায়াত করা যায়। আলুওয়ালিয়া সাহেব এই দু’টি দাবি পুরণের আশ্বাস দিলে হাততালির ঝড় ওঠে উপচে পড়া ভিড়ের মধ্য থেকে। স্থানীয় বাসিন্দা জয়ন্ত রায়ের অভিযোগ, এর আগে বহু বার বিভিন্ন মহলে এই দাবিগুলি জানানো হলেও, আজ পর্যন্ত তার সুরাহা হয়নি। কিন্তু ‘পদ্মশ্রী’ করিমুলের জন্য এখন পরিস্থিতি পালটে গিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের বিশ্বাস, এ বার সমস্যা দূর হবে। মন্ত্রী চলে যেতেই আনন্দে করিমুলকে কোলে তুলে নেয় আমজনতা। তবে নিজেকে এত ‘ভিভিআইপি’ ভাবতে রাজি নন ‘অ্যাম্বুলেন্স-দাদা’। তিনি জানিয়েছেন, তাঁর দাবি শুনে যে মন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, সেটাই তাঁর মহত্ব।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here