কয়লা শিল্পে নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসতে চায় পোল্যান্ড, বাণিজ্য সম্মেলনে যোগ দিয়ে জানালেন মন্ত্রী

0
Bengal Global Business Summit 2018,

কলকাতা: মঙ্গলবার বাংলা বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলনে উপস্থিত হয়েছিলেন পোল্যান্ডের ডেপুটি মন্ত্রী মেরেক ম্যাগিএরোস্কি। তিনি সম্মেলনের শেষে বণিকসভা বিসিসিআইয়ের আয়োজিত একটি বৈঠকে সাংবাদিকদের সঙ্গে মুখোমুখি হন। তিনি বলেন, পোল্যান্ড মূলত তামা ও কয়লার গভীর খনন করে থাকে। এর জন্য তাঁদের কাছে রয়েছে বিশেষ খনন প্রযুক্তি। সেই অত্যধুনিক নিরাপদ প্রযুক্তিই তাঁরা ভাগ করতে চান বাংলার সঙ্গে। এ বিষয়ে তিনি কোল ইন্ডিয়ার আধিকারিকদের সঙ্গেও এক প্রস্থ আলোচনা করেন।

ভারতের কয়লা খনন শিল্পে টালমাটাল অবস্থার সূচনা হয়েছে গত বছর তিনেক আগেই। সুপ্রিম কোর্টের রায়ে বে-আইনি আখ্যা দেওয়া ২১৪টি কয়লা খনি বাতিল ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই এই শিল্পে দুর্দিন নেমে এসেছে। রাষ্ট্রায়ত্ত বৃহত্তম কয়লা উৎপাদক এবং সরবরাহকারী সংস্থা কোল ইন্ডিয়া একক ভাবে সিংহভাগ চাহিদা পূরণ করলেও ঠিকাদার সংস্থাগুলির অবস্থা মোটের উপর ভালো নয়। যার জেরে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন কয়েক হাজার মানুষ। তবে বিদেশি সংস্থাগুলিকে খনি বণ্টনের সরকারি নীতি গ্রহণের ফলে সেই অবস্থার ধীর পরিবর্তন হতে চলেছে।

গত বছর পোল্যান্ড অংশ নিয়েছিল গুজরাত রাজ্য সরকার আয়োজিত শিল্প সম্মেলনে। বছর ঘুরতেই তারা ফের এ দেশে এল এ দেশের কয়লা শিল্পকে পাখির চোখ করে। পোল্যান্ডের তরফে জানানো হয়েছে, এ দেশে শক্তি, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ, প্রতিরক্ষা এবং অন্যান্য উদ্ভাবনী মূলক শিল্প পোল্যান্ডকে আকৃষ্ট করেছে।

বিজ্ঞাপন

ডেপুটি মন্ত্রী বলেন, তাঁরা মোটেই এ দেশে লাভজনক ব্যবসা প্রসারে আগ্রহী নন। তাঁদের লক্ষ্য দ্রুত উন্নয়নশীল দেশ হিসাবে প্রথমের সারিতে উঠে আসা ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক স্থাপন করা। সেই সম্পর্ক শুধু বাণিজ্যের মধ্যেই আবদ্ধ থাকবে না। সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক দিকগুলিকেও সমান ভাবে গুরুত্ব দেওয়া হবে।

ওই বণিকসভার তরফে জানানো হয়েছে, পোল্যান্ডের ডেপুটি মন্ত্রী এ দেশের কয়লা মানচিত্রে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন। বিশদ তথ্য সংগ্রহের পরই সুস্পষ্ট সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা জানিয়েছেন মন্ত্রী।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here