যৌন হেনস্থা থেকে বাঁচতে ছাত্রীদের ‘মেয়েলি’ পোশাক পরার পরামর্শ

0
84

মুম্বই: ভারতীয় মেয়েদের পলিসিস্টিক ওভারিয়ান ডিজিসের নতুন ব্যাখ্যা দিলেন মুম্বই-এর এক কলেজ অধ্যক্ষ। “কলেজ ছাত্রীরা বেশির ভাগ সময়ে পুরুষের পোশাক পরে থাকে বলে তাদের ভাবনাচিন্তাও পুরুষদের মতো হয়ে যায়। ক্রমশ প্রজননের স্বাভাবিক প্রবৃত্তিটুকুও কমতে থাকে মেয়েদের। সেই কারণেই এত অল্প বয়সে এই ধরনের রোগের শিকার হয় মেয়েরা” — সংবাদমাধ্যমকে বললেন অধ্যক্ষ স্বাতী দেশপান্ডে।

মুম্বই-এর সরকারি পলিটেকনিক কলেজে ছাত্রীদের পোশাক খুব শিগগির বদলে ফেলা হবে সালওয়ার কামিজে। সে রকমই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন স্বাতী দেবী। এখনও পর্যন্ত ট্রাউজার আর শার্ট পরেই কলেজে আসে ছাত্রীরা। সালওয়ার কামিজ পরে ল্যাবে কাজ করা অসুবিধের, এই অভিযোগ শোনার পরেও সিদ্ধান্তে আসেনি কোনো পরিবর্তন। ছাত্রীদের ‘মেয়েলি’ পোশাক পরা দরকার, মনে করছেন অধ্যক্ষ দেশপান্ডে।

 

কলেজ ছাত্রীদের ‘যৌন হেনস্থা’ থেকে বাঁচানোর জন্য এর আগেও নানা পদক্ষেপ করেছেন স্বাতী দেবী। দড়ি দিয়ে ছেলে আর মেয়েদের জায়গা আলাদা করা হয়েছে কলেজ ক্যান্টিনে। যদিও  ক্লাসরুমে এক সঙ্গেই বসছে পড়ুয়ারা। এই প্রসঙ্গে দেশপান্ডে বলেছেন, “এর আগে ক্যান্টিনে ছাত্রীকে হেনস্থা করার অভিযোগ এসেছিল। তা ছাড়া মেয়েদের আলাদা করে বসার জন্য কোনো জায়গা ছিল না এত দিন। তাই ক্যান্টিনকে ভাগ করে দেওয়া হয়েছে।”

 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here