ওয়েবডেস্ক: “আভি তো পার্টি শুরু হুয়ি হ্যায়”!

raj chakraborty

যদি ভাবেন, এ রকম একটা জমাটি মজলিস বসেছিল সেই রাতে, তা হলে ভুলটা আগে-ভাগেই ভাঙিয়ে দেওয়া ভালো!

বিজ্ঞাপন

mimi chakraborty

কেন না, শ্যামসুন্দর দে, নীল রায় আর অনীশের উদ্যোগে কলকাতার এক অভিজাত রেস্তোরাঁর ছাদে যে রাত-পার্টির আসর বসেছিল, সেখানে হাজির ছিলেন রাজ চক্রবর্তী, সঙ্গে তাঁর দুই প্রাক্তন এবং বর্তমান বান্ধবী! এ বার যদি ভাবেন দুই প্রাক্তন কোথা থেকে এল, তা হলে একটু তাকানো যাক অতীতের দিকে।মনে করে নেওয়া যাক, টলিপাড়ার ইন্ডাস্ট্রিতে রাজ চক্রবর্তীর প্রথম প্রেমিকা কে?

paayel sarkar

পায়েল সরকার! তাঁকে ভুলে যাননি তো? গেলে অবশ্য খুব একটা দোষ দেওয়া যায় না। কেন না, রাজ যখন পায়েলকে ছেড়ে মিমির দিকে চলে গেলেন, তখন পায়েল একেবারে মুখ বুজেই ছিলেন। কোনো রকম বিবাদের মধ্যে যাননি। সে তাঁকে নিয়ে মিডিয়া যত-ই যা-ই বলুক না কেন! আর মিমি চক্রবর্তীও যে এখন নাম লিখিয়েছেন রাজের প্রাক্তনদের দলে- সেটাও তো জানা কথাই! তা হলে দুই প্রাক্তনের হিসাব মিলল তো?

আরও পড়ুন: রাজের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসার আগে শুভশ্রীর শুভেচ্ছা মিমিকে

subhashree ganguly

মজার ব্যাপার, পার্টিতে রাজ কিন্তু শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে আসেননি। বরং, শুভশ্রী আর মিমিকে দেখা গেল একসঙ্গে আসতে, একসঙ্গে পার্টির আনন্দের জোয়ারে ভাসতে এবং পার্টি শেষ হলে ফের একসঙ্গেই বাড়ির পথ ধরতে! এই পুরো সময়টায় রাজ নিজের মতো এক কোণে চুপচাপ বসে ছিলেন, মিমি-শুভশ্রী-পায়েলকে একটা ছোটো করে ‘হ্যালো’ বলার পর! তার পর আর মিমি, শুভশ্রীর কাছ ঘেঁষেননি তিনি। এবং শুধু রাজ একাই নন, গোটা পার্টিতে পায়েলও ছিলেন চুপ করেই! রাজ তো বটেই, মিমি-শুভশ্রীর সঙ্গেও কথা বলার প্রয়োজন বোধ করেননি তিনি! এসেছিলেন শ্যামসুন্দর দে-র অনুরোধে, নিজের মতো করেই তাই সময় কাটালেন তিনি।

আরও পড়ুন: ঝগড়াঝাটি খতম, শ্রাবন্তীর উদ্যোগে শুভশ্রীর বিয়ের আগের স্পিনস্টার পার্টিতে হাজিরা মিমির!

srabanti chatterjee

তবে, আরেক নায়িকাও পার্টিতে হাজির ছিলেন, এবং তিনি বেশ উপভোগই করেছেন মিমি আর শুভশ্রীর সান্নিধ্য! শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ছাড়া আর কে-ই বা তিনি হতে পারেন! মনে নেই, কিছু দিন আগেই ভাইরাল হয়েছিল মিমি-শুভশ্রীর সঙ্গে তাঁর সেলফি?

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here