বাংলাদেশের কুষ্ঠিয়ায় হোমিওপ্যাথ খুন, অধ্যাপক জখম

0
105

খবর অনলাইন: এক হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসককে কুপিয়ে খুন করল অজ্ঞাতপরিচয় আততায়ীরা। তাঁর সঙ্গী এক অধ্যাপককে মারাত্মক ভাবে জখম করল তারা। এই নৃশংস ঘটনা ঘটেছে বাংলাদেশের কুষ্ঠিয়া শহরে শুক্রবার সকালে।

কুষ্ঠিয়া ইসলামি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলার অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রোফেসর সইফ-উজ-জামানকে তাঁর মোটরবাইকে চাপিয়ে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক মীর সানাউর রহমান যখন যাচ্ছিলেন সেই মুহূর্তে আততায়ীরা মোটরবাইকে এসে তাঁদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। তারা চিকিৎসককে কুপিয়ে হত্যা করে এবং তাঁর অধ্যাপক বন্ধুকে গুরুতর জখম করে পালিয়ে যায়। জামানসাহেবকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছে।

অতি সম্প্রতি বাংলাদেশে ব্লগার ও ধর্মনিরপেক্ষ সক্রিয় কর্মীদের যে ভাবে খুন করা হয়েছে, চিকিৎসককে খুন করার ধরনও সেই রকম। এই খুনের পেছনে র‍্যাডিক্যাল ইসলামপন্থীদের হাত আছে কিনা পুলিশ তা বলতে পারছে না। কুষ্ঠিয়ার পুলিশ সুপার বলেছেন, ওই চিকিৎসকের কোনও ব্যক্তিগত শত্রু আছে কি না এবং সেই কারণে তাঁকে খুন করা হয়েছে কি না সে বিষয়টি পুলিশ অগ্রাধিকার দিয়ে তদন্ত করছে।

বিজ্ঞাপন

মীর সানাউর রহমানের ভাই মীর আনিসুর রহমান বিবিসিকে জানিয়েছেন, পুলিশের এই বক্তব্য তিনি মানতে রাজি নন। তিনি বলেছেন, “ওঁর কোনও ব্যক্তিগত শত্রু ছিল না। উনি ওঁর বাগানবাড়িতে ডাক্তারি করতেন আর সেখানে মাঝে মাঝে বাউল গানের আসর বসাতেন। তিনি বাউল-ভক্ত ছিলেন। সেই কারণেই তাঁকে খুন করা হয়ে থাকতে পারে।”

ডাক্তার রহমান কুষ্ঠিয়া শহর থেকে ছ’ কিলোমিটার দূরে বটতৈল ইউনিয়নের শিশিরপাড়া মাঠ এলাকায় তাঁর বাগানবাড়িতে প্রতি শুক্রবার বিনা মুল্যে গ্রামের গরিব মানুষদের চিকিৎসা করতেন। এ দিনও তিনি যখন তাঁর শহরের বাসা থেকে বন্ধুকে নিয়ে বাগানবাড়িতে যাচ্ছিলেন, তখন পথেই তাঁকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এর আগেও ধর্মীয় উগ্রপন্থীদের হাতে বাউলভক্তরা আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশে।

এ দিকে বৃহস্পতিবার বুলগেরিয়ার রাজধানী সোফিয়ায় অভিবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশে যুদ্ধাপরাধীদের বিচারকে বানচাল করতেই পরিকল্পনা করে আক্রমণ করা হচ্ছে। “বিচ্ছিন্ন ভাবে যে ঘটনাগুলো ঘটছে তা সবই পরিকল্পিত। যখনই কোনও যুদ্ধাপরাধীর বিচার চূড়ান্ত পর্যায়ে গিয়ে পৌঁছয়, তখনই কয়েকটি মহল হত্যাকাণ্ডে মেতে ওঠে। তবে আমরা ইতিমধ্যেই দোষীদের ধরা শুরু করেছি। শীঘ্রই তাদের বিচার হবে।”

 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here