বৈধ অভিবাসী কমানোর বিল পেশ সেনেটে, কোপ পড়তে পারে ভারতীয়দের ওপর

0
97

ওয়াশিংটন: সাত মুসলিম প্রধান দেশের নাগরিকদের আমেরিকায় প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করার পর আদালতে ধাক্কা খেয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন। এতে একটুও না দমে অভিবাসীদের কমানোর জন্য ব্যবস্থা নিচ্ছে তারা। এই ব্যবস্থার ফলে সরাসরি প্রভাব পড়তে পারে যুক্তরাষ্ট্র নিবাসী ভারতীয়দের ওপর।

মার্কিননিবাসী বৈধ অভিবাসীদের সংখ্যা কমানোর জন্য সেনেটে একটি বিল এনেছেন দুই সেনেট সদস্য রিপাবলিকান টম কটন আর ডেমোক্র্যাট ডেভিড পার্ডিউ। প্রতি বছর যে সংখ্যক গ্রিন কার্ড অর্থাৎ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের জন্য বৈধ কার্ড দেওয়া হয়, তার সংখ্যা প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ কমিয়ে দেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে এই বিলে। বর্তমানে বছরে দশ লক্ষ গ্রিন কার্ড ইস্যু করে যুক্তরাষ্ট্রে। ট্রাম্প প্রশাসনের সমর্থন থাকা এই বিলটি পাশ হয়ে গেলে গ্রিন কার্ড ইস্যু করার সংখ্যা কমে আসবে পাঁচ লক্ষে।

এই বিলটি পাশ হলে অন্যান্য দেশের অভিবাসীদের পাশাপাশি প্রভাব পড়বে ভারতীয় অভিবাসীদের ওপরেও। গ্রিন কার্ড পেতে গেলে এখন ভারতীয়দের দশ থেকে ৩৫ বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। বিল পাশ হলে সে অপেক্ষা যে আরও বাড়বে সেটা বলাই বাহুল্য। বিল পেশের সমর্থনে কটন বলেছেন,

quate_f-1এখন সময় এসেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মার্কিন চাকরিজীবীদের জন্য কিছু করুক।

২০১৫-তে যুক্তরাষ্ট্রে বৈধ অভিবাসীর সংখ্যা ছিল দশ লক্ষের কিছু বেশি। বিলটি পাশ হয়ে গেলে প্রথম বছরে বৈধ অভিবাসীর সংখ্যা কমে আসবে ছ’লক্ষতে। “এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রে চাকরি এবং বেতনের ক্ষেত্রে সামঞ্জস্য আসবে”, এমনই দাবি কটনের।

শুধু অভিবাসীই নয়, এই বিলে শরণার্থী কমানোর কথাও উল্লেখ করা হয়েছে। বিলটি পাশ হলে বছরপ্রতি মাত্র পঞ্চাশ হাজার শরণার্থীকে যুক্তরাষ্ট্রে স্থায়ী বসবাসকারীর স্বীকৃতি দেওয়া হবে।      

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here