মহিলা ছাড়াই মহিলাদের জন্য কাউন্সিল চালু হল সৌদি আরবে

0
139

রিয়াধ: নারীদের স্বাধীনতা দেওয়ার ব্যাপারে বিশ্বের মধ্যে সব থেকে পিছিয়ে সে দেশই। নারীদের প্রকাশ্যে আসার ওপরেও জারি রয়েছে হাজার একটা নিষেধাজ্ঞা। সেই সৌদি আরবেই এ বার মহিলাদের জন্য প্রথম কাউন্সিল চালু হল। কিন্তু কাউন্সিলে একটা জিনিসেরই বড়ো অভাব। সেখানে কোনো মহিলাই নেই যে! তেরোজন পুরুষ নিয়ে যাত্রা শুরু করল মহিলাদের জন্য এই কাউন্সিল।

সৌদি আরবের আল কাশিম প্রদেশে চালু হয়েছে এই কাউন্সিলটি। ‘কাশিম গার্লস কাউন্সিল’ নামক এই সংস্থাটির প্রকাশ করা ছবিতে দেখা গিয়েছে সংস্থাটির প্রথম মিটিং-এ উপস্থিত রয়েছেন তেরো জন পুরুষ। আর মহিলা? মহিলারা আছেন, কিন্তু আলাদা ঘরে। প্রকাশ্যে নয়। অর্থাৎ মহিলাদের জন্য সংস্থায় নারী স্বাধীনতার ব্যাপারটাই উপেক্ষিত।

নিন্দুকরা ‘কাশিম গার্লস কাউন্সিল’-এর প্রকাশ করা এই ছবির সঙ্গে তুলনা করেছেন কিছুদিন আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের একটি ছবির সঙ্গে। ছবিতে দেখা গিয়েছে পুরুষ পরিবেষ্টিত হয়ে মহিলাদের গর্ভপাতের ব্যাপারে একটি নীতিতে সই করছেন ট্রাম্প। অর্থাৎ যাদের ব্যাপারে ট্রাম্পের নীতি, সেই মহিলারাই অনুপস্থিত।

সৌদি আরবের এই কাউন্সিলটির প্রধান কিন্তু একজন মহিলাই। তিনি কাশিম প্রদেশের রাজকুমারের স্ত্রী রাজকুমারি আবির বিন্ত সলমন। তিনি কিন্তু এই ছবির আড়ালেই রয়ে গিয়েছেন। কাউন্সিলের ব্যাপারে যা কিছু বলার বললেন রাজকুমার ফজল বিন মাসল বিন সৌদ। তাঁর কথায়, “কাশিম প্রদেশে মহিলাদের বোনের চোখে দেখা হয়। আমরা মনে করি সব ক্ষেত্রেই মহিলাদের আরও বেশি করে সুযোগ সুবিধা দেওয়া প্রয়োজন।”

উল্লেখ্য, ঐতিহাসিক ভাবেই মহিলাদের ওপর বিভিন্ন রকম নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা আছে সৌদি আরবে। কিন্তু ‘ভিশন ২০৩০’-এর জন্য আরোপিত অনেক নিষেধাজ্ঞাই তুলে নিতে চায় সে দেশ। কর্মক্ষেত্রেও মহিলাদের উপস্থিতি ২২ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৩০ শতাংশ করার পথে সে দেশ।

কাউন্সিলের উদ্বোধনী বক্তৃতায় রাজকুমার বলেছেন, আরব সমাজের অর্ধেকটাই আলো করে রয়েছেন মহিলারা। যদিও কাউন্সিলের এই ছবিতে তা বোঝার উপায় নেই।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here