বসে বসে মোটা হয়ে যাচ্ছে সেনারা, বরাদ্দ খাদ্যে কোপ সরকারের

0
503
spanish army

ওয়েবডেস্ক: এক সময়ে সেনাবাহিনীর এই রেজিমেন্টকে বলাই হতো মৃত্যুর দয়িত। এই দলের সেনাদের কঠোর অধ্যবসায়, ক্ষিপ্র গতিতে পদচালনার ক্ষমতা ছিল বিস্ময়কর। তাঁদের প্যাস্টেল শেডের ইউনিফর্ম একই সঙ্গে সম্ভ্রম এবং সন্ত্রাস জন্ম দিত মানুষের মনে। হবে না-ই বা কেন! প্রায় এক শতাব্দী আগে প্রতিষ্ঠিত স্পেনের এই লা লিজিয়ন রেজিমেন্টের সেনারা যে আসেন রীতিমতো উচ্চ বংশ থেকে। ফলে, পারিবারিক আভিজাত্যের সঙ্গে পৌরুষ আর বীরত্বের মিশেল সব দিক থেকেই অনন্য করে তুলেছিল স্পেন সেনাদলের লা লিজিয়ন রেজিমেন্টকে।

তবে, সব গৌরবগাথাই কালের নিয়মে ক্ষয় পেতে থাকে। লা লিজিয়নও তার ব্যতিক্রম নয়। এক দিকে যেমন তাঁদের সেনাদের অতীত গৌরবগাথার গায়ে ধুলো জমেছে, তেমনই বর্তমানের সেনাদের গায়ে জমছে মেদের পুরু স্তর। তাঁদের সিংহকটি ক্রমশ বর্ধিত হচ্ছে মেদভারে। হারিয়ে যাচ্ছে ক্ষিপ্রতা। উপায় না দেখে লা লিজিয়নের সেনাদের বরাদ্দ খাদ্য-পানীয়ে কোপ দিল স্পেন।

এ ছাড়া আর উপায়ই বা কী! ধনী বংশের সন্তান হওয়ার কারণে এই দলের সেনারা এমনিতেই বাড়তি খাতির পেয়ে থাকেন। ফলে, ঢালাও পানভোজনের তাঁদের অভাব হয় না। এবং এই পানভোজনটাই এখন হয়ে দাঁড়িয়েছে তাঁদের একমাত্র কাজ। শান্তির পরিবেশে যুদ্ধবিগ্রহের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে! অতএব, সেনা-ছাউনির একঘেয়ে জীবনযাত্রায় ফূর্তি আনতে আর কী বা করা যায়!

বিজ্ঞাপন

তাই এবার কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্পেন, লা লিজিয়নের সেনাদের খাদ্য-পানীয়র পরিমাণ এবার থেকে বেঁধে দেওয়া হবে। ব্যায়ামবিদদের পরামর্শ অনুযায়ী ঠিক করা হবে খাদ্যতালিকা। এ ছাড়া প্রায় অষ্টপ্রহর শরীরচর্চার মধ্যে রাখা হবে এই রেজিমেন্টের সেনাদের।

স্পেন সরকারের এই সিদ্ধান্ত স্বাভাবিক ভাবেই ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে লা লিজিয়ন রেজিমেন্টে। “মানছি, আমরা মোটা হয়ে যাচ্ছি, আমাদের দক্ষতা কমছে। কিন্তু তা শুধুই খাওয়া-দাওয়ার কারণে নয়। অর্থনৈতিক, সামাজিক, মনস্তাত্বিক- এরকম অনেকগুলো দিকই রয়েছে আমাদের এই আলস্যের পিছনে। কই, সরকার তো সেগুলো নিয়ে মাথা ঘামাচ্ছে না”, বলছেন লা লিজিয়নের সেনারা।

তবে, খাদ্যতালিকা বেঁধে দিলেও তাতেও যে বিলাসিতার ছাপ থাকবে, সেটা স্বীকার করতে কসুর করছে না স্পেন। “আমরা শুধু সেনাদের শারীরিক দিক থেকে ঠিকঠাক রাখতে চাই। সেই জন্যই এই ডায়েট আর ব্যায়ামের পরিকল্পনা। লা লিজিয়নকে কোনো ভাবেই না খাইয়ে রাখা হবে না। ওঁরা যে অভিজাত পরিবারের সন্তান, সেটা আমরা ভুলছি না”, জানানো হয়েছে স্পেনের তরফে।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here