সাবধানী মরগ্যান, আক্রমণাত্মক সঞ্জয়

0
106

সানি চক্রবর্তী :

ইস্টবেঙ্গল কিছুটা হলেও ভালো খেলছে। তবে কাউকে এগিয়ে পিছিয়ে রাখছি না। কলকাতায় দলের অনুশীলনের পরে এ ভাবেই রক্ষণাত্মক ছিলেন সঞ্জয়। তবে শিলিগুড়ির ডার্বির আবহে পা দিয়েই ফ্রন্টফুটে তিনি। আক্রমণাত্মক ভঙ্গিতে জানিয়ে দিলেন, “রবিবার পরিষ্কার করে দেব কারা এগিয়ে কারা পিছিয়ে। ইস্টবেঙ্গল ভালো খেলছে বলার মানে তাদের এগিয়ে রাখছি যাঁরা ভাবছেন, তাঁরা বাংলাটা বোঝেন কি  না সন্দেহ আছে।” বাগান-সারথি খোলস ছেড়ে বেরিয়ে এলেও মরগ্যান এখনও ঢাল করলেন সেই পেশাদারি বর্ম। বিধাননগর মিউনিসিপ্যালিটি গ্রাউন্ডে দলের অনুশীলনের পরে বললেন, “সমর্থকদের কাছে ম্যাচটার গুরুত্ব আলাদা, সেটা বুঝি। কিন্তু জিতলে তো ফুটবলাররা তিন পয়েন্টই পাবে। তার বেশি তো কিছু নয়।”

 শুক্রবার সকালে মাঠে ঘণ্টাখানেকের অনুশীলনের পরে দুপুরের বিমানে শিলিগুড়ি উড়ে যায় মোহনবাগান। দলের রক্ষণকে মেরামতি করার পাশাপাশি মূলত স্ট্রেংথ ট্রেনিংয়ের উপরই জোর দিয়েছেন সঞ্জয়। সনি, কাটসুমিদের জন্য আলাদা করে সেটপিস মুভ অনুশীলনের সময়ও বরাদ্দ ছিল। এ দিনের অনুশীলনে শরীর খারাপের জেরে আসেননি আনাস। তবে ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার এডুকে বেশ চনমনে লেগেছে এ দিন। সঞ্জয়ের নির্দেশে এমনিতেই ফুটবলারদের মুখে কুলুপ। শুধু তাঁবু ছাড়ার আগে এডু বলে গেলেন, “ডার্বি বড়ো মঞ্চ। তাই মাঠে নেমেই যাবতীয় উত্তর দেব।” প্রসঙ্গত, উইলিস প্লাজার এজেন্ট তথা মোহনবাগানের জার্সিতে জাতীয় লিগ জেতা স্টিভেন আবারোয়ির সঙ্গে ফেসবুকে বাক-যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছিলেন তিনি। স্টিভেন এডুকে কড়া ভাষায় সমালোচনা করে প্লাজার হয়ে সওয়াল করেন। প্রথমে বাকযুদ্ধ শুরু করলেও পরে সেই বিতর্কিত পোস্ট সরিয়ে নেন এডু। বলা বাহুল্য, তাঁদের ঝগড়ার মূলে আখেরে ছিল ডার্বিতে প্লাজার গোল পাওয়া, না-পাওয়া ঘিরে তরজা।

বিজ্ঞাপন

অপর দিকে, এ দিনই ইস্টবেঙ্গলও পৌঁছে গিয়েছে শিলিগুড়ি। মরগ্যানের অন্যতম বড়ো ভরসা তথা ডার্বিতে ভালো ট্র্যাক রেকর্ড থাকা রবিন সিং জানিয়ে গেলেন, “আগের যাবতীয় পারফরম্যান্স অতীত। সে সব নিয়ে ভাবছি না। মরগ্যানের নেতৃত্বে ইস্টবেঙ্গলে নতুন করে শুরু করেছি।” এ দিকে, এ দিনই সন্ধেয় কলকাতায় এসে পৌঁছে গেছেন ইস্টবেঙ্গলের চতুর্থ বিদেশি ক্রিস্টোফার পায়েন। শনিবার দুপুরে আইএফএ অফিসে সই করে তার পরে শিলিগুড়ির বিমান ধরবেন এই অসি স্ট্রাইকার। ডার্বিতে তার খেলার কোনো রকম সম্ভাবনা না থাকলেও, দলের সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারলে ১৫ তারিখের লাজং ম্যাচে দলে রাখা হতে পারে তাঁকে। 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here