এবিভিপি বলেছে নিরাপত্তার গ্যারান্টি নেই, দিল্লির কলেজে
পথনাটিকা বন্ধ

0
61

নয়াদিল্লি: দিল্লির রামজস কলেজে সেমিনার বন্ধ করে দেওয়ার পর আরও মানসিক ভাবে বলীয়ান হয়েছে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি)। এ বার তারা সেন্সর বোর্ডের ভূমিকা পালন করতে শুরু করে দিল, যার জেরে বন্ধ হয়ে গেল দিল্লির এসজিটিবি খালসা কলেজে পথনাটিকা প্রতিযোগিতা। কলেজের অধ্যক্ষ জসবিন্দর সিং অবশ্য বলছেন, কোনো চাপের কাছে নতি স্বীকার করে নয়, কলেজ কর্তৃপক্ষ ‘স্বেচ্ছায়’ অনুষ্ঠানটি স্থগিত করে দিয়েছেন।

অধ্যক্ষ যা-ই বলুন আসল ঘটনা কিন্তু তাঁর বক্তব্য সম্পর্কে সংশয় সৃষ্টি করে। এবিভিপি পরিচালিত দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদ (ডিইউএসইউ) অধ্যক্ষকে হুমকি দিয়ে বলেছিল, ওই অনুষ্ঠানে নিরাপত্তার গ্যারান্টি তারা দিতে পারছে না। ডিইউএসইউ-এর সভাপতি এবং এবিভিপি-র সদস্য অমিত তানোয়ার বলেন, “প্রতিযোগিতায় মঞ্চস্থ হওয়ার আগে নাটকের স্ক্রিপ্ট ভালো করে পড়ে নেওয়ার জন্য আমি অধ্যক্ষকে বলেছি। আমি বলেছি, কোনো আপত্তিকর বা জাতীয়তা-বিরোধী বিষয়বস্তু থাকলে সংকটজনক পরিস্থিতির সৃষ্টি হবে। সে ক্ষেত্রে অনুষ্ঠানে নিরাপত্তার গ্যারান্টি দেওয়া যাবে না।”

অধ্যক্ষ বলেছেন, “সাম্প্রতিক হিংসাত্মক ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করার মতো পরিস্থিতি নেই। তাই সকলের সঙ্গে আলোচনা করার পর আমরা স্বেচ্ছায় অনুষ্ঠান স্থগিত করে দিয়েছি।”

তবে থিয়েটার অনুষ্ঠানের কনভেনার এবং কলেজের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর সৈকত ঘোষ অভিযোগ করেছেন, ডিইউএসইউ-এর কাছ থেকে বার বার হুমকি আসার পরই অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছে। তিনি বলেন, “ডিইউএসইউ বার বার হুমকি দিচ্ছিল। ক্যাম্পাসে শান্তি ও স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য পুলিশও আমাদের কাছে আবেদন জানিয়েছিল।”

গত বুধবার রামজস কলেজে এবিভিপি এবং আইসা’র মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ ঘটে। জেএনইউ-এর ছাত্র উমর খলিদ এবং শেহলা রশিদকে একটি সেমিনারে আমন্ত্রণ জানানোকে কেন্দ্র করে এই সংঘর্ষ। ‘প্রতিবাদের সংস্কৃতি’ (কালচার অব প্রোটেস্টস) শীর্ষক ওই সেমিনার অবশ্য এবিভিপি-র বিরোধিতায় কলেজ কর্তৃপক্ষ স্থগিত করে দেয়। এই ঘটনা নিয়ে বৃহস্পতিবারও দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের নর্থ ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছিল। হিংসাত্মক সংঘর্ষের সময় পুলিশের অতিসক্রিয়তায় ক্ষুব্ধ ছাত্রছাত্রীরা প্রকাশ্যে তাঁদের প্রতিবাদ জানান। তবে ‘অপেশাদারি আচরণের’ জন্য তিন জন পুলিশকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, রামজস কলেজ এবং এসজিটিবি খালসা কলেজ দু’টোই দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের নর্থ ক্যাম্পাসে।       

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here