সিসিটিভি থেকে নিরাপত্তাকর্মী, স্কুল বাস নিয়ে নির্দেশিকা সিবিএসই-র

0
87

নয়াদিল্লি ঃ সিবিএসই (সেন্ট্রাল বোর্ড অব সেকেন্ডারি এডুকেশন)-এর অধীনে থাকা সব ক’টি স্কুলের বাসের ওপর বেশ কিছু নির্দেশিকা আরোপ করল বোর্ড। নির্দেশিকায় সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো বাধ্যতামূলক করা হল। এ ছাড়াও বাসগুলিতে থাকবে জিপিআরএস ব্যবস্থাও। প্রতি বাসে এক জন করে নিরাপত্তা কর্মীও রাখতে হবে। নতুন নিয়মে বলা হয়েছে, পড়ুয়াদের নিরাপত্তার স্বার্থে জরুরি পরিস্থিতির জন্য বাসে থাকবে সাইরেন। বাসের জানালায় বসানো হবে গ্রিল। প্রত্যেক বাসে এক জন করে অভিভাবকের থাকাও বাধ্যতামূলক করছে বোর্ড। এই মর্মে বোর্ড জানিয়েছে, প্রতিটি নির্দেশিকা অক্ষরে অক্ষরে মেনে চলতে হবে। প্রত্যেক স্কুল বাসে এই নিয়ম কার্যকর করার দায়িত্ব স্কুল কর্তৃপক্ষের। তা অমান্য করা হলে সেই স্কুলের অনুমোদন খারিজ করা হবে। 

 মাস খানেক আগে উত্তরপ্রদেশের ইথা জেলায় একটি দুর্ঘটনায় ১২ জন পড়ুয়া প্রাণ হারায়। তার পরিপ্রেক্ষিতেই স্কুল বাসে যাতায়াত করা পড়ুয়াদের নিরাপত্তার স্বার্থে এই ব্যবস্থা করা হল বোর্ডের তরফে। এই নির্দেশিকা কার্যকর হবে সিবিএসই-র অনুমোদিত আঠারো হাজার স্কুল ও কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়গুলির ওপর। বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশানুসারে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই বিষয়ে মোটর ভেহিকেলস অ্যাক্ট ও রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনেই এই নিয়ম তৈরি করা হয়েছে।

নির্দেশিকাটি দেখতে ক্লিক করুন : TransportCircular23022017

নতুন নিয়মে বলা হয়েছে:

  • বাস প্রতি এক জন করে প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত মহিলা পরিচারিকা থাকবেন। তা ছাড়াও এক জন অভিভাবক থাকবেন, যিনি বাসের ড্রাইভার ও কনডাকটরের ওপর তত্ত্বাবধান করবেন।
  • বাসের গতি বাঁধা থাকবে  ৪০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায়, তার বেশি না।
  • বাসের জানালায় লম্বালম্বি ভাবে গ্রিল বসাতে হবে। বাসের সিসিটিভি ক্যামেরাগুলো যেন ২৪ ঘণ্টাই কাজ করে সে বিষয়েও নজর রাখতে হবে।
  • বাসে কোনো পর্দা বাঁ আড়াল থাকবে না।
  • বিপদ সংকেত হিসেবে সাইরেনের সঙ্গে রাখতে হবে ঘণ্টার ব্যবস্থাও।
  • যে কোনো কারণে বাসের কোনো কর্মী বছরে দু’বারের বেশি অভিযুক্ত হলে তাঁকে স্কুল কর্তৃপক্ষ কাজে রাখতে পারবে না। তেমনই কোনো বাস চালক যদি এক বারও বেঁধে দেওয়ার গতির থেকে বেশি জোড়ে গারি চালান বা খারাপ ভাবে গাড়ি চালান তা-হলে তাঁকেও আর কাজে রাখা যাবে না। পড়ুয়া, অন্যান্য কর্মী বা কারোর সঙ্গেই চালকরা প্রয়োজনের থেকে বেশি কথা বলতে পারবেন না। 

স্কুলগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, জরুরি পরিস্থিতির জন্য প্রত্যেকটি বাসে একটি করে মোবাইল ফোনের ব্যবস্থা করতে। নির্দেশিকায় পড়ুয়াদের বলা হয়েছে, চালক ও কনডাকটারদের ব্যবহারের বিষয়ে তাদের মতামত জানাতে। 

 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here