জাত ধর্মের বিভেদ ঠেলে বৃহত্তর প্রতিবাদের পথে কেরল

0
78

তিরুঅনন্তপুরম: এর আগে এত বড়ো প্রতিবাদ কেরল দেখেনি। প্রতিবাদমঞ্চের নাম ‘চলো তিরুঅনন্তপুরম’। প্রায় ৫০টি সংগঠন মিলে একজোট হওয়ার আয়োজন করছে এপ্রিল মাসের মধ্যেই। দলিত, আদিবাসী, মুসলিম, বহুজন, কেরলের সমাজে প্রান্তিক যাঁরা, প্রত্যেকেই সামিল হচ্ছেন প্রতিবাদে। চেনা ছকের রাজনীতির বাইরে এক বিকল্প তৈরির চেষ্টায় একজোট হচ্ছেন সবাই।

কেরলের কাসারগড় থেকে এপ্রিলের প্রথম দিনটাতেই বেরিয়ে পড়বে প্রতিবাদ মিছিল। রাজধানীতে এসে জমায়েত হওয়ার কথা মে মাসের শেষ দিন। ভূ অধিকার সংরক্ষণ সমিতির ছাতার তলায় একটু একটু করে সংগঠিত হচ্ছে প্রতিবাদ।

বিক্ষোভকারী জিগনেশ মেওয়ানি প্রতিবাদ প্রসঙ্গে সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, “সমমনস্ক মানুষগুলোকে কাছাকাছি নিয়ে আসতেই হবে। তার মধ্যে বামপন্থীরাও আছেন। কেরলের উন্নয়নের মডেল নিয়ে খোলাখুলি আলোচনা করার সময় এসেছে।”

কেরল স্বাক্ষরতার হারে (৯৪%)  ভারতের (৭৪%) চেয়ে প্রায় ২০ শতাংশ এগিয়ে। কিন্তু এর পেছনে চাপা পড়ে যাওয়া সত্যিটা হল, এই হিসেবের বাইরেই থেকে গিয়েছে রাজ্যের জনসংখ্যার ৯.৮ শতাংশ দলিত, ১.১ শতাংশ আদিবাসী। ভূ অধিকার সংরক্ষণ সমিতির চেয়ারম্যান সানি কাপিক্কাড় বললেন, ভূমি সংস্কার কেরলে তেমন শিল্পায়নের জন্ম দিতে পারেনি, সামাজিক সুবিচারকেও নিশ্চিত করতে পারেনি। রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবা পুরোটাই মাফিয়াদের হাতে।

জমিকে কেন্দ্র করে কেরল উত্তাল হয়ে উঠেছে একাধিক বার। সেই ২০০১ সাল থেকেই। জমির দাবিতে ২০০১, ২০০৩-এ সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী হয়ে ওঠে। কখনও টানা ৪৮ দিনের প্রতিবাদ চলে। ২০১৪ সালে ১৬২ দিনের বিক্ষোভ চলেছিল টানা। সেই বার অবশ্য আদিবাসীদের অধিকাংশ দাবি মেনে নেয় সরকার।

লক্ষ করার বিষয়, এই রাজ্যে মুসলিম, দলিত, বহুজন, সবার মধ্যেই বেশ ঐক্য তৈরি হয়েছে ‘চলো তিরুঅনন্তপুরম’কে কেন্দ্র করে। ইন্ডিয়ান ইউনিয়ন মুসলিম লিগ-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট কুট্টি আহমেদ কুট্টি জানালেন, এই প্রতিবাদকে সফল করার জন্য তিনি সাধ্যমতো সব চেষ্টাই করবেন। ঐক্যের প্রসঙ্গে সানি কাপ্পিকাড়ের মতটাও এক। “মুসলিমরা নানা অসুবিধার মোকাবিলা করছে। আইনের সমানাধিকার নিয়ে যারা কাজ করছে, তারা সবাই মুসলিমদের পাশে দাঁড়াবে।”

তবে রাজ্যের ক্ষমতায় থাকা মার্ক্সবাদীদের মত একটু আলাদা। তাঁরা মনে করছেন, জাতি, ধর্মকে হাতিয়ার করে লড়াই বেশি দিন স্থায়ী হবে না। ধর্মনিরপেক্ষতার পথ ধরেই হাঁটতেই হবে। 

 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here