আপ মনোনীত রাজ্যসভা প্রার্থীর মনোনয়ন বাতিলের দাবি তুলল কংগ্রেস

0
329
N D Gupta Rajya Shaba nominee

নয়াদিল্লি: রাজ্যসভার সাংসদ নির্বাচনে আম আদমি পার্টির মনোনীত প্রার্থী নারায়ণ দাস গুপ্তার মনোনয়ন বাতিলের দাবি তুলল জাতীয় কংগ্রেস। এন ডি গুপ্তা নামে পরিচিত এই প্রার্থীর প্রার্থী পদ ভারতীয় সংবিধানের ১০২ ধারার প্রতিবন্ধক বলে দাবি করা হয়েছে। কংগ্রেসের তরফে বলা হয়, তিনি অফিস অব প্রফিট আইনে কোনো মতেই প্রার্থী হতে পারেন না।

আগামী ১৬ জানুযারি রাজ্যসভা সাংসদ নির্বাচনে আপ সুশীল গুপ্তা, এন ডি গুপ্তা এবং সঞ্জয় সিংহকে প্রার্থী মনোনীত করেছে। এঁদের মধ্যে এন ডি গুপ্তা বর্তমানে ন্যাশনাল পেনশন সিস্টেম ট্রাস্টের এক জন সদস্য। ফলে এই পরিস্থিতিতে তিনি অন্য আর একটি সাংবিধানিক পদের ব্যবহার করতে পারেন না।

কংগ্রেস নেতা অজয় মাকেন টুইটারে লিখেছেন, সরকারি মালিকানাধীন একটি ১.৭৫ লক্ষ কোটি টাকার সংস্থায় ট্রাস্টি হিসাবে থাকা এন ডি গুপ্তা কোনো মতেই প্রার্থী মনোনীত হতে পারেন না। তিনি ওই পদের সুবিধা ভোগ করছেন গত ২০১৫-এর ৩০ মার্চ থেকে।

এই অভিযোগ জানিয়ে সংশ্লিষ্ট নির্বাচন আধিকারিককে কংগ্রেস লিখিত ভাবে মনোনয়ন বাতিলের আবেদন জানিয়েছে।

গত ৩ জানুয়ারি আপ প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশ করার পরই পশ্চিম দিল্লির বিজেপি সাংসদ পারভেশ ভার্মা বলেছিলেন, ‘সুশীল গুপ্তা এবং এন ডি গুপ্তাকে যে কতিপয় ব্যক্তি চেনেন, তাঁরাও আমার কথা মানবেন। আমি হলফ করে বলতে পারি, ওনার দলের সাংসদ-বিধায়ক এবং যে জনগণ ওনাকে ভোট দিয়েছেন, তাঁরা কেউ-ই এই দুই মনোনীতকে চেনেন না।’

প্রবীণ আইনজীবী এবং প্রাক্তন আপ নেতা প্রশান্ত ভূষণও ওই দুই ব্যক্তিকে আপ প্রার্থী করায় নিন্দা করেছিলেন। আর এক প্রাক্তন আপ নেতা যোগেন্দ্র যাদবও মন্তব্য করেছিলেন, এই ঘটনায় তিনি লজ্জিত। একই দিনে আপের জনপ্রিয় নেতা কুমার বিশ্বাসকেও দলীয় শাস্তির মুখে পড়তে হয়েছিল ‘বেফাঁস’ মন্তব্যের জন্য।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here