পণপ্রথা ও বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে ৪ কোটি মানুষের মানবশৃঙ্খল করল বিহার

0
248
human-chain-by-Bihar

পটনা : সারি সারি মানুষ হাতে হাত ধরে দাঁড়িয়ে আছেন। সেই মানবশৃঙ্খলের বিহারের মন্ত্রী-আমলা কেউ বাদ নেই।  কেন? পণপ্রথা ও বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে মানুষকে সচেতন করতে তাঁরা হাতে হাত মিলিয়েছেন। সরকারি হিসাব অনুযায়ী প্রায় চার কোটি মানুষ রবিবার সামিল হয়েছিলেন এই মানবশৃঙ্খলে।

৩৮টি জেলায় ১৩, ৬৬০ কিলোমিটার জুড়ে তৈরি হয়েছিল এই মানবশৃঙ্খল। দুপুর বারোটা নাগাদ হাতে হাত ধরে দাঁড়িয়ে পড়েন এই শৃঙ্খলে সামিল ব্যক্তিরা। পাটনার গান্ধী ময়দানে বেলুন উড়িয়ে এর উদ্বোধন করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার।

তবে এই প্রথম নয় গত বছরও এই ২১ জানুয়ারিতে এমনই আরও একটি মানবশৃঙ্খল দেখেছিলেন বিহারবাসী। সে বার সদ্য ক্ষমতায় এসে রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার। মদের বিরুদ্ধে সেদিন তৈরি হয়েছিল মানবশৃঙ্খল। তার সঙ্গে হাতে হাত রেখে শৃঙ্খলে সামিল হয়েছিলেন সেই সময় তাঁর সরকারের শরিক আরজেডি সুপ্রিমো লালু প্রসাদ যাদব। নীতীশের সরকারের সঙ্গে অনেক আগেই সম্পর্ক ছিন্ন করেছে আরজেডি। পশুখাদ্য কেলেঙ্কারির জেরে দলের সুপ্রিমোর এখন জেলে। তাই এই মানবশৃঙ্খলে দেখা যায়নি তাঁকে।

বিশ্বের বৃহত্তম মানবশৃঙ্খলে পণপ্রথা এবং বাল্যবিবাহ থেকে বিহারের শৃঙ্খলমুক্তি হয় কিনা এখন সেটাই দেখার।

ছবি : ইউনিসেফ টুইটার

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here