যোগী রাজত্বে ফতোয়া: ভ্যালেন্টাইনস ডে-তে লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়ে গেলেই শাস্তি

0
Lucknow University

লখনউ: বুধবার ভ্যালেন্টাইন’স ডে-তে কোনো ছাত্র-ছাত্রী যেন বিশ্ববিদ্যালয়ে না আসে। এই মর্মে নির্দেশিকা জারি করেছে উত্তরপ্রদেশের লখনউ বিশ্ববিদ্যালয়। শুধু তাই নয়, বলা হয়েছে, ওই দিন যদি কাউকে বিশ্ববিদ্যালয়ে চত্ত্বরে দেখা যায় তা হলে থাঁকে কঠিন শাস্তির মুখে পড়তে হবে। বিস্ময়কর এই নির্দেশ জারি করার পর সারা দেশ জুড়ে স্বাভাবিক ভাবেই উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্য নাথের সমালোচনা ফের শুরু হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় অবশ্য বিতর্ক এড়াতে বেছে নিয়েছে ভিন্ন কৌশল। বলা হচ্ছে, বুধবার মহাশিব রাত্রি। সেই কারণেই ওই দিন বিশ্ববিদ্যালয়ে সমস্ত ধরনের পঠন-পাঠন, পরীক্ষা সূচি বাতিল করা হয়েছে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে দেখা গেলে, শাস্তির মুখে পড়ার কথা উত্থাপিত হওয়ায় অনুসন্ধিৎসুদের মনে ভ্যালেন্টাইন’স ডে বিরোধিতার প্রসঙ্গটিই গুরুত্ব পাচ্ছে। কারণ নিছক শিবরাত্রির জন্য বিশ্ববিদ্যালয় ছুটি থাকলে শাস্তির কথা উঠত না বলেই তাঁদের ধারণা। কলেজের একাংশের ছাত্র-ছাত্রীদের অভিযোগ, ওই দিন সমস্ত ধরনের পড়াশোনা, পরীক্ষা বাতিলের মূল কারণ যাতে ছাত্র-ছাত্রীরা একত্রিত না হতে পারে। বেশ কিছু সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল অতীতে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী বিনোদ সিংয়ের স্বাক্ষরিত ওই নির্দেশাবলিতে নিয়ম লঙ্ঘনকারীর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে পরিস্কার ভাবে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এক ছাত্র মন্তব্য করেছেন, “কর্তৃপক্ষ ছুটির দিন ঘোষণা করেছেন ঠিক আছে, কিন্তু ছাত্রছাত্রীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে ঢুকতে দিচ্ছেন না, ঠিক এটা মোটেই ঠিক নয়। যদি আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রবেশ না করি তবে কে করবে?”

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এস এন সিং এনডিটিভিকে জানিয়েছেন, “এই সিদ্ধান্তটি একান্ত ভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের কথা ভেবে নেওয়া হয়েছে।  এর কারণ বাইরে আসা উচিত নয় এবং আমাদের শিক্ষার্থীদের হয়রানি করা উচিত নয়। আমরা আইনশৃঙ্খলাজনিত কোনো রকমের সমস্যা চাই না।”

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here