উত্তরপ্রদেশের এক স্কুলে যৌন নির্যাতনের ঘটনা, নির্যাতিতা কিশোরীর আত্মাহুতি

0
170

গোরক্ষপুর : স্কুল আর যৌন নির্যাতনকে ঘিরে আরও একটি ঘটনা সামনে এল। নির্যাতিত হওয়ার পর গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করল দ্বাদশ শ্রেণির এক পড়ুয়া। ঘটনা উত্তরপ্রদেশের দেউরিয়ার। পুলিশ জানিয়েছে, একটি প্রাইভেট স্কুলের ছাত্রী এই নির্যাতিতা। স্কুলের প্রিন্সিপ্যালের ছেলে তার ওপর যৌন নির্যাতনের চেষ্টা করে। তার পরই নিজের বাড়িতে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করে এই কিশোরী। ঘটনায় অভিযুক্ত স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল-সহ মোট ছ’ জন। ঘটনার পর এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। থানা ঘেরাও করেন এলাকাবাসীরা। অভিযুক্তের দ্রুত গ্রেফতারির দাবি জানাতে থাকেন তাঁরা।

গৌরীবাজার পুলিশ স্টেশনের আধিকারিক অনিল কুমার বলেন, ঘটনা নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেছেন মৃতার দিদিমা। চারজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। অভিযুক্ত ছ’ জনের খোঁজ চলছে। তিনি বলেন, মূল অভিযুক্ত হল প্রিন্সিপ্যালের ছেলে। সে-ই নাবালিকাকে প্রিন্সিপ্যালের ঘরে ডেকে আনে। সেখানেই তাকে নির্যাতনের চেষ্টা করে। ঘটনার পর কাউকে কিছু না বলার জন্য হুঁশিয়ারিও দেয়। কিন্তু ঘটনাটি জানলা দিয়ে দেখে ফেলেন একজন একলাকাবাসী। তিনিই নাবালিকার ভাইকে ঘটনাটি জানিয়ে দেন। নাবালিকার ভাই এর পর স্কুলে গিয়ে অভিযুক্তকে মারধর করেন। এর পর বদলা নিতে অভিযুক্ত সাঙ্গোপাঙ্গ নিয়ে মৃতার বাড়িতে চড়াও হয়। তার ভাইকে মারধর করে। এর পরই কিশোরী বাড়ির একটা ঘরে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here