সুপ্রিম কোর্টে তিন তালাক-এর বিরোধিতা করবে কেন্দ্রীয় সরকার

0
85

শীর্ষ আদালতে ‘তিন তালাক’-এর বিরোধিতা করার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। অভিন্ন দেওয়ানি বিধি নয়, মহিলাদের মানবাধিকারের কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সরকারের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। এই মাসের মধ্যেই কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রক আদালতে তার জবাব পেশ করবে।

শুধু তিন তালাক নয়, মুসলিমদের মধ্যে প্রচলিত বহুবিবাহ আর ‘নিকাহ হলাল’ প্রথা প্রসঙ্গে সরকারের কী নীতি হবে তা নির্ধারণ করতে আলোচনায় বসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংহ, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী মনোহর পরিকর, নারী ও শিশুকল্যাণ মন্ত্রী মানেকা গান্ধী। আলোচনায় সিদ্ধান্ত হয় মানবাধিকারের দিক দিয়েই এই ব্যাপারগুলো দেখা হবে।

ওই কর্মকর্তা বলেন, “অভিন্ন দেওয়ানি বিধির কথা মাথায় রেখে নয়, মহিলাদের মানবাধিকারের দিক দিয়েই এটা দেখা হচ্ছে। আদালতে আমাদের উত্তরেও মানবাধিকারের কারণ দেখানো হবে। সংবিধান বলে নারী আর পুরুষের সমান অধিকার থাকতে হবে।”

তিন তালাক প্রথা যে শুধুমাত্র ভারতেই প্রচলিত, তা মনে করিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, “পাকিস্তান আর বাংলাদেশেও এই প্রথা নেই, শুধু ভারতেই রয়েছে।”

উল্লেখ্য তিন তালাক, বহুবিবাহ আর ‘নিকাহ হালাল’-এর প্রথা অসাংবিধানিক দাবি করে আদালতের দারস্থ হন উত্তরাখণ্ডের শায়রা বানু। এরপর তিন তালাকের মাধ্যমে বিবাহবিচ্ছেদ হওয়া কলকাতা আর জয়পুরের দু’জন মহিলাও আদালতে যান। এই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই এ মাসের শুরুতে সুপ্রিম কোর্ট কেন্দ্রীয় সরকারকে নিজের জবাব পেশ করার জন্য চার সপ্তাহ সময় দেয়।

এই আবেদনের বিরোধিতা করছে জমায়েত উলেমা হিন্দ আর অল ইন্ডিয়া মুসলিম পারসোনাল ল বোর্ড।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here