বাণিজ্য বৈঠক থেকে যোগব্যায়াম- দাভোসে বিশ্বের নজর কাড়তে মরিয়া মোদী

0
215
narendra modi

ওয়েবডেস্ক: দাভোসের বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলন কি আখেরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অস্বস্তিই বাড়াবে?

এই প্রশ্নের উত্তর এখনই দেওয়া কঠিন। কেন না এক দিকে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের রিপোর্ট বলছে, সার্বিক উন্নয়ন মোদী-সরকারের আমলে কিছুই হয়নি। বিশ্বের উন্নয়নশীল দেশগুলির তালিকায় পাকিস্তানের চেয়েও পিছিয়ে রয়েছে ভারত। অর্থনৈতিক ও সার্বিক উন্নয়নের খতিয়ানে বিশ্বে পাকিস্তান ৪৭ নম্বরে রয়েছে। অন্য দিকে ভারত সেখানে জায়গা করে নিতে পেরেছে ৬২ নম্বরে। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশ রয়েছে ৩৪ নম্বরে এবং ভূমিকম্প-বিধ্বস্ত হলেও নেপাল অধিকার করেছে ২২ নম্বর স্থান। পাশাপাশি, ভারত যে মোদী সরকারের নেতৃত্বে শুধু পিছিয়ে রয়েছে, তাই নয়, একই সঙ্গে গত বছরের নিরিখে নেমে এসেছে দুই ধাপ। গত বছরের রিপোর্টে ভারতের স্থান ছিল ৬০ নম্বরে। এ বার পতনের ইতিহাসই উঠে এল সামনে।

davos

এ সবের মধ্যেই ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের টুইট বলছে, বিশ্বের ডাকসাইটে বাণিজ্য সংস্থার কর্তাদের সঙ্গে মোদীর বৈঠক বেশ সন্তোষজনকই হয়েছে। সেই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মাইক্রোসফ্টের সত্যা নাদেলা, রিলায়েন্সের মুকেশ অম্বানি, এয়ারবাসের ডার্ক হোক প্রমুখ। জনে জনে ভারতের অর্থনৈতিক উন্নয়নের জন্য পরামর্শ চেয়েছেন মোদী। আন্তর্জাতিক সংস্থাদের আহ্বানও করেছেন ভারতে বিনিয়োগে। এ ছাড়া, সম্ভবত ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের রিপোর্টকে মাথায় রেখেই জানিয়েছেন- বাণিজ্যের সুবিধার চেয়েও বেশি করে তাঁর দেশ এ বার জোর দেবে জীবনযাপনের সুবিধায়। তবে কী ভাবে, তা বিশদে জানাননি তিনি।

এক দিকে যখন ভারতের উন্নয়নশীলতা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে বিশ্বদরবারে, অন্য দিকে তেমনই অর্থহীন চমক দিয়ে আন্তর্জাতিক দুনিয়াকে মাত করতে চাইছেন মোদী। জানা গিয়েছে, সম্মেলনে ভারত থেকে তাঁর সঙ্গে গিয়েছেন দুজন যোগ-প্রশিক্ষক। সুইজারল্যান্ডের বরফঢাকা ঢালে তাঁরা যোগব্যায়ামের নানা কসরত দেখিয়ে চলেছেন। যা আন্তর্জাতিক দুনিয়ার চিত্তবিনোদনের কারণ হয়েছে বলা যায়। জানা গিয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পও কিছু সময় খরচ করে এই যোগাভ্যাস দেখে গিয়েছেন।

এ সবের মধ্যেই আপাতত অপেক্ষা- বিশ্ব বাণিজ্যের এই দরবারে দেশের উন্নয়নশীলতার দিক থেকে পিছিয়ে পড়া এবং বিত্তবানদের হাতে সম্পদ কুক্ষিগত হওয়া নিয়ে কী সাফাই দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী। অনবরত তুষারপাতে আপাতত দাভোসের পথঘাট ঢেকে গিয়েছে। ফলে, নানা দেশের প্রতিনিধিরা ঠিক সময়ে সম্মেলনে পৌঁছতে পারছেন না। যার দরুন পিছিয়ে যাচ্ছে বৈঠকের জন্য নির্দিষ্ট হওয়া সময়ও।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here