ভারতে ‘১৬-১৭য় আর্থিক বৃদ্ধির হার ১ শতাংশ কমবে : আইএমএফ

0
71

ওয়াশিংটন: বিমুদ্রাকরণের প্রভাবে ভারতের অর্থনীতিতে ‘সাময়িক বিঘ্ন’ ঘটায় চলতি অর্থবর্ষে আর্থিক বৃদ্ধির হার কমে ৬.৬ শতাংশ হওয়ার সম্ভাবনা। আন্তর্জাতিক অর্থ ভাণ্ডার (আইএমএফ)-এর  বার্ষিক রিপোর্টে প্রকাশিত হয়েছে এই তথ্য। রিপোর্টে জানানো হয়েছে, ভারতীয় অর্থনীতির ওপর নোট বাতিলের প্রভাব খুবই ক্ষণস্থায়ী। কয়েক বছরের মধ্যেই বার্ষিক আর্থিক বৃদ্ধির হার আগেকার জায়গায় ফিরে আসবে। 

আন্তর্জাতিক অর্থ ভাণ্ডারের বার্ষিক রিপোর্টে স্পষ্ট উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৬-র ৮ নভেম্বরের পর দেশ জুড়ে যে নগদ সঙ্কট দেখা দিয়েছিল, তার প্রভাবে দেশের ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ড কমে গিয়েছিল অনেকটাই। ফলে পুরোনো আর্থিক বৃদ্ধির হার ধরে রাখাটা ভারতের সামনে সবচেয়ে বড়ো চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। চলতি এবং আগামী অর্থবর্ষে আর্থিক বৃদ্ধির হারের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে যথাক্রমে ৬.৬% এবং ৭.২%। সিএসও থেকে কয়েক মাস আগেই চলতি আর্থিক বছরের বৃদ্ধির হারের পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল ৭.১%।  কেন্দ্রীয় বাজেটে অরুণ জেটলির মুখেও শোনা গিয়েছিল সে রকমটাই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, ২০১৫-১৬ অর্থবর্ষে ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার ছিল ৭.৬%। অতএব আইএমএফ-এর রিপোর্ট অনুযায়ী, গত বছরের তুলনায় এ বছর বৃদ্ধির হার কমছে ১%। 

ভারতের অর্থনৈতিক বৃদ্ধির হার প্রসঙ্গে আইএমএফ-এর এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর ক্রিস্টিন লাগারডে জানিয়েছেন, গত কয়েক বছরে ভারতের অর্থনীতি অনেকটাই এগিয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের উচিত মুদ্রাস্ফীতি বিরোধী আর্থিক নীতি গ্রহণ করা। 

আইএমএফের রিপোর্ট বলছে, ২০১৫-১৬-এর আর্থিক বৃদ্ধির হার ছোঁয়া যাবে না ২০১৭-১৮ অর্থবর্ষেও। এর পরেও অর্থনীতির ‘বিঘ্ন’কে কতটা ‘সাময়িক’ বলা যায় বা আদৌ বলা যায় কিনা, সেটাই প্রশ্ন।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here