জেএনইউ অধ্যাপকের বিরুদ্ধে দেশ-বিরোধিতার
অভিযোগ দায়ের করল যোধপুর বিশ্ববিদ্যালয়

0
85

যোধপুর: ২০১৬-র ঠিক এরকম সময়েই জেএনইউ (জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়)-এর পাশাপাশি সারা দেশ তোলপাড় হয়েছিল ছাত্র সংগঠনের নেতা কানহাইয়া কুমারকে নিয়ে। দেশদ্রোহিতার দায়ে গ্রেফতার কানহাইয়া। একবছর কাটতে না কাটতেই আবারও শিরনামে জেএনইউ, অভিযোগটাও অনেকটা একরকম। জেএনইউ-অধ্যাপক নিবেদিতা মেননের বিরুদ্ধে করা হল দেশ বিরোধিতার অভিযোগ।

 রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক মেনন জয় নারায়ণ ব্যাস বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত সেমিনারে অংশ গ্রহণ করতে যোধপুর গিয়েছিলেন। সেমিনারের বিষয় ছিল ‘ইতিহাসের পুনর্ব্যাখ্যা- জাতি, ব্যক্তি এবং সংস্কৃতি’। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আরপি সিংহ সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, নিবেদিতা বক্তব্য রাখতে গিয়ে বলেন কাশ্মীর ভারতের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ নয়। আর ভারতীয় সেনাবাহিনী নিয়ে অধ্যাপক মন্তব্য করেন, সেনারা টাকা পান, তাই কাজ করেন, জাতির কথা ভেবে নয়। এই মন্তব্যের পর থেকেই অখিল ভারতীয় বিশ্ব পরিষদের কর্মীরা প্রতিবাদে মুখর হয়ে ওঠে, বন্ধ করে দেওয়া হয় অনুষ্ঠান। অধ্যাপক মেননের বিরুদ্ধে জাতীয় সঙ্গীত এবং জাতীয় পতাকাকে অবমাননা করার অভিযোগও ওঠে।

“আরএসএস পন্থী এক প্রাক্তন অধ্যাপকের প্ররোচনায় সামান্য বক্তব্য নিয়ে জল ঘোলা হয়েছে, আমি ‘হিন্দুইসম’ আর ‘হিন্দুত্ব’-এর মধ্যে পার্থক্য বোঝাতে চেয়েছিলাম। ‘হিন্দুত্ব’ নামক রাজনৈতিক আদর্শের ঘোর বিরোধী আমি” বললেন নিবেদিতা। 

যোধপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফ থেকে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর প্রশাসন সিদ্ধান্ত নেবে, মেননের বিরুদ্ধে এফআইআর করা হবে কিনা।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here