‘প্রোগ্রেস পঞ্চায়েত’, মুসলিমদের কাছে টানতে নতুন কর্মসূচি কেন্দ্রের

0
100

গত শনিবার কোঝিকোড়ে মুসলিমদের ‘নিজেদের লোক’ ভাবার বার্তা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তাদের শুধুমাত্র ভোটব্যাঙ্ক মনে না করারও পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। মোদীর ভাষণের পর সপ্তাহ না পেরোতেই মুসলিমদের কাছে টানতে নতুন পরিকল্পনা ঘোষণা করল কেন্দ্র। ‘প্রোগ্রেস পঞ্চায়েত’। বৃহস্পতিবার থেকে দেশের মুসলিম-অধ্যুষিত অঞ্চলগুলিতে শুরু হবে এই পঞ্চায়েত।

এই কর্মসূচি বিজেপির রাজনৈতিক ভাবমূর্তি পরিবর্তনের ক্ষেত্রে অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ পদক্ষেপ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কারণ, দীর্ঘদিন ধরেই মুসলিম সম্প্রদায়ের  খুবই কম ভোট পেয়ে আসছে বিজেপি। কিন্তু তা পাওয়ার লক্ষ্যে এতদিন কোনও কর্মসূচি নেয়নি এই দল।যদিও মুসলিমদের লক্ষ্য করেই যে এই পঞ্চায়েতের পরিকল্পনা, তা স্বাভাবিক ভাবেই স্বীকার করা হয়নি সরকারি তরফে। 

গোটা প্রকল্পটির দেখাশোনার দায়িত্বে আছেন কেন্দ্রের সংখ্যালঘু বিষয়ক মন্ত্রী মুকতার আব্বাস নকভি। তাঁক থায়, ‘এই প্রকল্প অতীতের কোনও প্রকল্পের মতো নয়। এটা ভোটের জন্য করা হচ্ছে না। এই প্রকল্পে স্কুল, নার্সিং হোম, মেয়েদের হোস্টেলের মতো সমস্যাগুলির সমাধান তৎক্ষণাৎ করে দেওয়া হবে’।

বৃহস্পতিবার প্রথম এই পঞ্চায়েত বসবে বিজেপি-শাসিত হরিয়ানার মেওয়াটে। বিরিয়ানিতে গরুর মাংস থাকা নিয়ে ইদের আগে উত্তেজনা ছড়িয়েছিল এই এলাকায়। পরের দুই প্রোগ্রেস পঞ্চায়েত বসবে বিজেপি-শাসিত রাজস্থান ও মহারাষ্ট্রে।

আসন্ন গুরুত্বপূর্ণ উত্তরপ্রদেশ বিধানসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখেই বিজেপির এই নয়া পদক্ষেপ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। সেখানে ১৮ শতাংশ মুসলিম ভোট রয়েছে। সেই ভোট বরাবরই কংগ্রেস ও সমাজবাদী পার্টি পেয়ে থাকে। এই প্রকল্পের মাধ্যমে সেই ভোট না পাওয়া গেলেও মুসলিম সম্প্রদায়ের কাছে ইতিবাচক বার্তা পৌঁছে দেওয়া যাবে বলে মনে করছে বিজেপি।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here