সমকামিতা ও বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ককে আইনত দণ্ডণীয় ঘোষণা করতে পারে ইন্দোনেশিয়া

0
1117

জাকার্তা : বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক এমনকি সমকামী সম্পর্ককেও আইনত দণ্ডণীয় ঘোষণা করতে পারে ইন্দোনেশিয়ার সরকার। বহু ধর্মের মানুষের বাস ইন্দোনেশিয়ায়। তবে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশে সমকামী সম্পর্ককে আইনি স্বীকৃতি দিলে দেশের মুসলিম পার্টির কোপে পড়তে হতে পারে, এই আশঙ্কায় বিষয়টি থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে চাইছেন অনেকেই। এই আইন কার্যকর হলে সেই অনুযায়ী এই কারণগুলির জন্য কমপক্ষে পাঁচ বছরের সাজার কথা বলা হয়েছে। তবে এই আইনের ফলে যে ইন্দোনেশিয়ার নাগরিকদের ব্যক্তিগত স্বাধীণতা ও মৌলিক অধিকার ক্ষুণ্ণ হবে এই বিষয়টি নিয়েও সরব হয়েছেন মানবাধিকার সংগঠন ও আইন বিশেষজ্ঞরা। সমকামী, রূপান্তরকামী ইত্যাদি সম্প্রদায়ের ওপরও এই আইনের যে সাংঘাতিক কুপ্রভাব পড়বে সে বিষয়েও চিন্তাপ্রকাশ করেছেন তাঁরা।

আধিকার রক্ষার স্বার্থে মানবাধিকার সংগঠন গত সপ্তাহ থেকে একটি অনলাইন ভোটের ব্যবস্থা করেছে। এই অনলাইনের ভোটের মাধ্যমে আইনের বিরুদ্ধে মতামত সংগ্রহ করা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই তাতে প্রায় ২০ হাজার মানুষ স্বাক্ষর করেছে।

সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সচেতন গোষ্ঠীর মতে, দেশের অনেকটা জুড়েই রয়েছে মুসলিম ধর্মের প্রভাব। ফলে সেই সব এলাকায় উন্নতি, অগ্রসর প্রায় নেই বললেই চলে। নেই আধুনিকতার ছোঁয়া। এমনকি মেয়েদের কাজ করা, গর্ভনিরোধ, গর্ভপাত এই বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা করা বা সচেতনতা গড়ে তোলাও এখানে বন্ধ।

বিজ্ঞাপন

অন্যদিকে ইউনাইটেড ডেভেলপমেন্ট পার্টির সাংসদ আসরুল সানি জানিয়েছেন, এখনও পর্যন্ত পার্লামেন্টের ২৫ জন সদস্যই এই আইনের পক্ষে মতপ্রকাশ করেছেন।

তবে প্রেসিডেন্ট জোকোউই এই বিষয়ে ভেটো প্রয়োগ করতে পারেন। কিন্তু আসন্ন ভোটের কথা মাথায় রেখে তিনি কী সিদ্ধান্ত নেবেন, আপাতত সেই দিকে তাকিয়ে আছে ইন্দোনেশিয়ার সাধারণ মানুষ।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here