কোনও ঝুঁকি না থাকলেও মা না হওয়ার অধিকার আছে মেয়েদের: বোম্বে হাইকোর্ট

0
84

নিজের শরীরের ওপর একমাত্র অধিকার মেয়েদের নিজেদেরই। কোনও মহিলা মাতৃত্ব নেবেন কি নেবেন না, সেটাও একমাত্র তাঁরই অধিকার।  জানিয়ে দিল বোম্বে হাইকোর্ট। ভিকে তাহিলরামানি ও মৃদুলা ভাটকরের বেঞ্চ সোমবার জানিয়ে দিয়েছে, দেশের অন্ত‌ঃসত্ত্বা সংক্রান্ত আইনে চিকিৎসাশাস্ত্রগত ভাবে ভ্রূণহত্যার পরিসর থাকলেও, সেটাকে মহিলার ‘মানসিক স্বাস্থ্য’ পর্যন্ত প্রসারিত করা প্রয়োজন। যাতে কোনও মহিলা নিজে না চাইলে সন্তান ধারণ না করতে পারেন, তা সে কারণ যাই হোক।

ভারতীয় আইন অনুযায়ী সন্তানসম্ভবা অবস্থায় ১২ সপ্তাহের মধ্যে ভ্রূণহত্যা আইনসম্মত, যদিও দু’জন চিকিৎসকের অনুমতি দরকার। ১২ থেকে ২০ সপ্তাহের মধ্যেও ভ্রূণহত্যা হতে পারে, যাদি সন্তান ধারণ সংশ্লিষ্ট মহিলার বা ভ্রূণটির কোনও ঝুঁকি থাকে। কিন্তু এদিনের রায়ে আদালত বলেছে, শারীরিক কোনও ঝুঁকি না থাকলেও কেউ সন্তান ধারণ না করার এবং ভ্রূণহত্যার সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

কারাগারে বন্দি এক অন্ত‌ঃসত্ত্বা মহিলার আবেদন প্রেক্ষিতেই এদিনের রায় দেয় বেঞ্চ। ওই মহিলা ১৫ সপ্তাহ হল অন্ত‌ঃসত্ত্বা হয়েছেন। কিন্তু তাঁর সঙ্গী তাঁকে ছেড়ে চলে যাওয়ায় তিনি ভ্রূণহত্যা করার অনুমতি চেয়েছিলেন আদালতের কাছে।

এদিন আদালত বলেছে, ‘সন্তান ধারণ মহিলার স্বাস্থ্য ও জীবনে গভীর প্রভাব ফেলে। তাই এই বিষয়টি সম্পর্কে কেউ কী সিদ্ধান্ত নেবে, সেটা সম্পূর্ণ তাঁরই ব্যাপার। মহিলাদের মৌলিক অধিকার থেকে আমাদের চোখ সরানো উচিৎ নয়, তাঁর শরীর নিয়ে সে কী করবে সেই সিদ্ধান্তের অধিকার তাঁর রয়েছে। এর মধ্যে অন্ত‌ঃসত্ত্বা হওয়া বা না হওয়া এবং অন্ত‌ঃসত্ত্বা থাকা বা না থাকার অধিকারও পরে’।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here