সাসপেনশন ঘিরে তুলকালাম বিধানসভায়, অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে মান্নান

0
103

কলকাতা: বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানকে বিধানসভা থেকে সাসপেন্ড করার প্রতিবাদে বিরোধী বিধায়কদের সঙ্গে মার্শালদের ধস্তাধস্তি বেঁধে গেল। এই ধস্তাধস্তিতে অসুস্থ হওয়ার ফলে একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করতে হল বিরোধী দলনেতাকে।

lineঘটনার সূত্রপাত বুধবার দুপুরে। আন্দোলনের নামে সম্পত্তি ভাঙচুর করা যাবে না বলে আগেই হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সংক্রান্ত ‘জনশৃঙ্খলা রক্ষা বিল ২০১৭’ আনা হয় বিধানসভায়। এই বিল আনার সময় বিধানসভা ভাঙচুরের পুরনো একটি ছবি সম্বিলিত পোস্টার নিয়ে আসেন মান্নান। মান্নানকে এই পোস্টার দেখাতে বারণ করেন বিধানসভার স্পিকার। তিনি মান্নানকে বলেন, “এটা বিধানসভার নীতি ও রীতি বিরুদ্ধ, আপনি এটা করবেন না।” স্পিকারের নির্দেশ শোনেননি মান্নান।

এর পরই তাঁকে একদিনের জন্য বিধানসভা থেকে সাসপেন্ড করেন স্পিকার। এতেই আগুনে ঘি পড়ে। মান্নানকে সাসপেন্ড করার প্রতিবাদে কংগ্রেস বিধায়করা ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন কংগ্রেস এবং বাম বিধায়করা। মান্নানও বিরোধী বিধায়কদের সঙ্গে বিধানসভার মধ্যে বসে পড়েন। তাঁকে সরানোর জন্য স্পিকারের নির্দেশে আসেন মার্শালরা। এর পরই মার্শাল এবং বিরোধী বিধায়কদের মধ্যে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। ধস্তাধস্তিতে অসুস্থ হয়ে পড়েন মান্নান। তাঁকে স্ট্রেচারে করে বিধানসভার বাইরে নিয়ে আসেন বিরোধী বিধায়করা। তালতলার একটি বেসরকারি নার্সিং হোমের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়েছে অসুস্থ বিরোধী দলনেতাকে। এই ধস্তাধস্তি চলাকালীন অবশ্য ধ্বনিভোটে পাশ হয়ে যায় বিলটি।

assembly2

তৃণমূল কংগ্রেসের বিধায়করা তাঁদের শারীরিক ভাবে হেনস্তা করেছে বলে অভিযোগ করেন বিরোধী বিধায়করা। এমনকি বিরোধী মহিলা বিধায়কদেরও নিগ্রহ করা হয় বলে অভিযোগ। যদিও সব অভিযোগ খণ্ডন করেছে তৃণমূল। শাসক দলের দাবি, তাদের ওপরেই প্রথমে চড়াও হন বিরোধী বিধায়করা।

এই ধস্তাধস্তির প্রতিবাদে বৃহস্পতি ও শুক্রবার বিধানসভা বয়কটের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাম ও কংগ্রেস।

বিধানসভার ছবি: রাজীব বসু

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here