সলমনের পর সচিন, অভিনব শুভেচ্ছা-দূত

0
61

খবর অনলাইন: আপত্তি জানিয়ে বিতর্কের ঝড় তোলেন উড়ন্ত শিখ মিলখা। পাশে পেয়েছিলেন কুস্তিগির যোগেশ্বর দত্তকে। সেই বিতর্কের জেরেই রিও অলিম্পিকে একের পর এক সেলিব্রেটিকে শুভেচ্ছা-দূত মনোনীত করে চলেছে ভারতীয় অলিম্পিক সংস্থা (আইওএ)। এ বার সচিন তেন্ডুলকর শুভেচ্ছা-দূত হলেন। এই নিয়ে আপাতত তিন জন শুভেচ্ছা-দূত হলেন – সলমন খান, অভিনব বিন্দ্রা এবং সচিন তেন্ডুলকর। এই তালিকা যে আরও দীর্ঘ হতে পারে তারও ইঙ্গিত মিলেছে আজ।

আইওএ-র সেক্রেটারি জেনারেল রাজীব মেহতা পিটিআইকে জানান, অলিম্পিকে ভারতীয় দলের শুভেচ্ছা-দূত হওয়ার জন্য তাঁরা সচিন তেন্ডুলকরকে অনুরোধ করেছিলেন। তাঁর সম্মতিসূচক চিঠি এসেছে।

সলমন খানকে শুভেচ্ছা-দূত করার পর হইচই শুরু হওয়ায় আইওএ সচিন তেন্ডুলকর, অভিনব বিন্দ্রা এবং এ আর রহমানকে শুভেচ্ছা-দূত হওয়ার জন্য অনুরোধ করে। অভিনব এবং সচিন রাজি হলেন। রহমান এখনও কিছু জানাননি। তবে রাজীব মেহতার আশা, রহমানও আমন্ত্রণ গ্রহণ করবেন।

বিজ্ঞাপন

কিন্তু এতগুলো শুভেচ্ছা-দূতের কাজ কী ? আইওএ-র সচিব-প্রধান বলেন, “এই কিংবদন্তি খেলোয়াড় ও সেলিব্রিটিরা ভারতের প্রতিটি গ্রাম, প্রতিটি ব্লক, প্রতিটি শহরে, দেশের কোণে কোণে অলিম্পিক আন্দোলনের ভাবধারা ছড়িয়ে দেবেন। এই ব্যাপারটা দেশে একটা ক্রীড়া-সংস্কৃতি তৈরি করতে সাহায্য করবে। আমরা যদি ভালো খেলাধূলার দেশ হতে চাই, তা হলে আমাদের একটা ক্রীড়া-সংস্কৃতি তৈরি করা দরকার।”

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here