শনিবার শুরু আইএসএল, ফাটাফাটি ফুটবলের অপেক্ষায় আতলেতিকোর ফ্যানরা

0
127

নর্থ ইস্ট ইউনাইটেড আর কেরল ব্লাস্টার্সের ম্যাচ দিয়ে দেবীপক্ষের প্রথম দিন গুয়াহাটির ইন্দিরা গান্ধী স্টেডিয়ামে ঢাকে কাঠি পড়তে চলেছে ভারতীয় ফুটবল ইতিহাসে নিঃসন্দেহে সব থেকে আকর্ষণীয় ঘরোয়া টুর্নামেন্ট ইন্ডিয়ান সুপার লিগের (আইএসএল)। এ বছর আইএসএলের তৃতীয় সংস্করণ। আট দলের আইএসএলের খুব সম্ভবত শেষ সংস্করণ এটি, কারণ পরিকল্পনামাফিক সামনের বছর থেকে আই লিগের সঙ্গে আইএসএল মিশিয়ে দিলে দলের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

জোর কদমে প্রস্তুতিতে নেমে পড়েছে আতলেতিকো দে কলকাতা। গত দু’বছরের কোচ, কলকাতার প্রধান স্ট্রাটেজিস্ট আন্তোনিও আবাস এখন পাড়ি দিয়েছেন পুনেতে। সঙ্গে নিয়ে গিয়েছেন তাঁর প্রিয় ছাত্র, গত বার চারটি গোল করা ইজুমি আরাতাকেও। তাও দমবার পাত্র নয় টিম আতলেতিকো। নতুন কোচ খোসে মোলিনার তত্ত্বাবধানে চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। গত দু’বছরের মতো এবারও স্পেনে আবাসিক শিবির করে এসেছে আতলেতিকো।    

দিয়েগো ফোর্লান খেলবেন কি খেলবেন না, সেই নিয়ে জল্পনা চলেছে বিস্তর। আতলেতিকোর সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েও তা বাতিল করে মুম্বইয়ের উদ্দেশে পাড়ি দিয়েছেন ফোর্লান। আগের মরশুমের মার্কি প্লেয়ার পোস্টিগা প্রথম ম্যাচের পর চোট পেয়ে বেরিয়ে গেলেও, এ বছর তিনি একদম ফিট, ফর্মের তুঙ্গে রয়েছেন বলে খবর। পোস্তিগাকে ভরসা দিতে ফরোয়ার্ডে থাকবেন ইয়ান হিউম। গতবারের সর্বোচ্চ গোলদাতা হিউম এবারও দারুণ কিছু করার জন্য মুখিয়ে থাকবেন সে ব্যাপারে নিশ্চিত। রয়েছেন সমিঘ দ্যুতি, গতবার যাঁর সামারসল্ট মন কেড়েছিল কলকাতার জনতার। এর পাশাপাশি থাকবেন ডিফেন্সে নির্ভরযোগ্য বাংলার অর্ণব মণ্ডল। এ ছাড়াও আগের মরশুমের খাবি লারা, তিরি আর বোর্খা ফের্নানদেজকে দলে রেখেছে আতলেতিকো। রয়েছেন লালরিন্দিকা রাল্টে, বিকাশ জাইরু, অবিনাশ রুইদাস আর জুয়েল রাজাকেও রেখে দিয়েছে কলকাতা। তবে গোলকিপিং বিভাগ সম্পূর্ণ বদলে ফেলা হয়েছে। শিল্টন পাল, দেবজিত মজুমদারের সঙ্গে গোলকিপার হিসেবে রয়েছেন স্পেনের দানি মায়ো। নতুন বিদেশি হিসেবে কেরল ব্লাস্টার্সে খেলা স্টেফেন পিয়ারসন, খুয়ান বেলেনকোসোকে নিয়েছে কলকাতা।

ঘরের মাঠ বদলে গেছে আতলেতিকোর। যুব বিশ্বকাপের জন্য নতুন ভাবে সেজে উঠছে যুবভারতী ক্রীড়াঙ্গন, তাই রবীন্দ্র সরোবর স্টেডিয়ামে নামবে মোলিনার দল। এই জন্য নতুন বাতিস্তম্ভ লাগানো হয়েছে স্টেডিয়ামে। স্টেডিয়ামে ম্যাচ করার বিরুদ্ধে পরিবেশ আদালতে মামলা হলেও, শর্ত সাপেক্ষে খেলার অনুমতি দিয়েছে আদালত। এখন অপেক্ষা রবীন্দ্র সরোবরের সবুজ ঘাসে হিউম-পোস্টিগা-দ্যুতিরা কতটা ‘ফাটাফাটি ফুটবল’-এর উপহার দেন। সৌরভের কথামতো ‘টেনে মারতে’ প্রস্তুত তাঁর যোদ্ধারা।     

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here