ডেল স্টেইনের দরকার নেই ভারতের জন্য, বুঝিয়ে দিল ‘বিশ্বসেরা’ ব্যাটিং লাইনআপ

0
1151

ওয়েবডেস্ক: এই ভারতীয় দল অত্যন্ত আগ্রাসী। এরা একটা বিশেষ ধরনের ক্রিকেটের ব্র্যান্ডকে জনপ্রিয় করতে চায়। সিরিজ শুরুর আগে বলেছিলেন ভারতীয় দলের হেড কোচ রবি শাস্ত্রী। সেই ব্র্যান্ডকে জনপ্রিয় করার কাজটা অবশ্য অনেক আগেই শুরু করে দিয়েছিল বিসিসিআই। দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের আগে বারতীয় দলের প্রস্তুতির কোনো বন্দোবস্ত রাখেনি। সেই পথে আরও এগিয়ে প্রথম টেস্টের আগে সে দেশে কোনো প্রস্তুতি ম্যাচও খেলেনি ভারত। বদলে দেশ থেকে তিনজন প্রতিভাবান পেসারকে উড়িয়ে নিয়ে গিয়ে প্রস্তুত করেছিল নিজেদের।

তো সেইসব প্রস্তুতি আর ব্র্যান্ডের ফল মিলল কেপ টাউন টেস্টে। মাত্র ২০৮ রান করতে পারলে এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে কেপ টাউনে টেস্ট জয়ের ইতিহাস গড়তে নেমে মাত্র ১৩৫ রানে গুটিয়ে গেল উপমহাদেশের বাঘ ভারতীয় ব্যাটিং। বৃষ্টির জন্য তিনদিনে শেষ হওয়ার ম্যাচ চারদিন গড়াল। সেটা কোনো বড়ো কথা নয় অবশ্য রবি শাস্ত্রীর কাছে। তিনি জানেন, বরাবরই দীর্ঘ প্রস্তুতি নিয়ে গিয়ে অস্ট্রেলিয়া-ওয়েস্ট ইন্ডিজ-দক্ষিণ আফ্রিকায় তিন-সাড়ে তিন দিনেই ম্যাচ শেষ করে এসেছে ভারত। আর ওই দলগুলোর পেসাররাতাঁদের কেরিয়ারের সেরা বোলিংগুলো করে নিয়েছে সেই সুযোগে। তবে কিনা, বিরাটের দল ঘরের মাঠে টি টুয়েন্টি এবং অন্যান্য ক্রিকেটে বলে বলে সব দলের বিরুদ্ধে রোলার চালানোর মধ্যে দিয়ে ফাঁকতালে প্রায় বিশ্বসেরা হয়ে গেছে, তাই একটু চাপ। ৪২ রানে ৬ উইকেট নিয়ে জীবনের সেরা পারফরম্যান্স করে যে চাপটা খানিক বাড়িয়ে দিলেন ভেরনন ফিল্যান্ডার। বুঝিয়ে দিলেন, ভারতের জন্য দুনিয়ার সেরা পেসারের(ডেল স্টেইন চোট পেয়ে সিরিজের বাইরে চলে গেছেন) কোনো দরকার নেই।

তো সেই টি টুয়েন্টি আর ওয়ান ডের এমনই মহিমা যে বিদেশের মাটিতে দেশের সেরা ব্যাটসম্যান রাহানেকে বসিয়ে খেলাতে হয় হিটম্যান রোহিত শর্মাকে। যিনি পেস বলের কূলকিনারা খুঁজে পেলন না। অবশ্য কেই বা পেলেন! মাঠে ও মাঠের বাইরে সারাক্ষণ আগ্রাসী ভাব নিয়ে ঘুরে বেড়াতে থাকা শিখর ধাওয়ান প্রথম ইনিংসে লোপ্পা ক্যাচ ফেললেন আর ব্যাটিং-এ দুই ইনিংসে টি টুয়েন্টির রেপ্লিকা তৈরি করার চেষ্টা করতে গিয়ে যা করার তাই করলেন।

বিজ্ঞাপন

বিরাট অবশ্য চাপ নেননি। নতুন বউকে গ্যালারিতে না রেখে বাড়ি পাঠিয়ে দিয়েছেন।

ক্রিকেট মানে তো শুধু ঝিঁঝি নয়, বিনোদনও। সামি-ভুবি-বুমরারা দুরন্ত বোলিং করে দক্ষিণ আফ্রিকাকে মাত্র ১৩০ রানে অল আউট করে যতই নিজেদের সেই প্যাকেজভুক্ত করার চেষ্টা করুন। আসল হচ্ছে হার্দিক পান্ড্যর ডান পা তুলে আপার কাট। সে্টাই আপাতত ভারতীয় ক্রিকেটের সবচেয়ে বড়ো ব্র্যান্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকায়। আগ্রাসন যাকে বলে আর কি!

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here