শিলং গাঁট কাটাতে মরিয়া মরগ্যান

0

সানি চক্রবর্তী:

চোটের জেরে নেই উইলিস প্লাজা, ওয়েডসন আনসেলমে। লিগে তাঁর দলের দুই সেরা স্কোরার ও প্লে-মেকার দলে না থাকলেও ফুরফুরে মেজাজেই আছেন ট্রেভর জেমস মরগ্যান। বলেই দিচ্ছেন, “প্লাজাকে ছাড়া যদি বেঙ্গালুরু ম্যাচে জিততে পারি, তা হলে ওয়েডসনকে ছাড়া লাজংকে হারানো যাবে না কেন?” বেঙ্গালুরুকে তাদের ঘরের মাঠে হারিয়ে লিগের শীর্ষস্থান দখলের পরে এমনিতেই চনমনে লাল-হলুদ শিবির। কিন্তু এ বার ফের শক্ত চ্যালেঞ্জের মুখে তারা। শিলং লাজংয়ের ঘরের মাঠে তাদের বিপক্ষে অ্যাওয়ে ম্যাচে খেলতে নামছে লালহলুদ শিবির। ইস্টবেঙ্গলে ট্রেভর জেমস মরগ্যানের দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই বড়োসড়ো হোঁচট দিয়েছিল লাজং। তার পর থেকে মেঘালয়ের দলটি রীতিমতো গাঁট হয়ে উঠেছে মরগ্যানের কাছে। সেটা ভালোমতো জেনেই মরগ্যান জানিয়েছেন, “তরুণ ফুটবলারদের নিয়ে গঠিত লাজং। কঠিন ম্যাচে হবে। তিন পয়েন্ট পেতে বেশ খাটনিই খাটতে হবে।”

থংবই সিংটোর প্রশিক্ষণাধীন দলটি এমনিতেই ঘরের মাঠে খুব ভালো ফুটবল উপহার দিয়েছে এই মরশুমে। তা ছাড়া ঘরোয়া সমর্থকরা দলের হয়ে গলা ফাটাচ্ছেন বেশ ভালো মাত্রাতেই। তাদের আপফ্রন্টে রয়েছে দিপান্ডা দিকার মতো স্ট্রাইকার, যিনি এখনও পর্যন্ত ৮ গোল করে সর্বাধিক গোলদাতাদের তালিকায় সব থেকে উপরে রয়েছেন। তরুণ দলটিকে আটকাতে তাই গুরবিন্দর-বুকেনাদের বাড়তি ওয়ার্কলোড নিতে হবে। কানের ব্যথা সারিয়ে উগান্ডার ডিফেন্ডারটি এই মুহূর্তে ফিট। মাঝমাঠে ওয়েডসনের বদলি হিসেবে কেভিন লোবোর খেলার সম্ভাবনা কম। বরং মেহতাব ও রৌলিন, আগের ম্যাচের মতো এই দু’জন শুরু করতে পারেন। বাঁ দিকের উইংয়ে ফিরছেন ডিকা। ডান দিকে নিখিল। আপফ্রন্টে আগুনে ফর্মে থাকা রবিনের সঙ্গী পায়েন। পরিবর্ত হিসেবে থাকছেন হাওকিপ।

বিজ্ঞাপন

মূল স্টোডিয়ামে শুক্রবার সকালে ঘণ্টাখানেক অনুশীলন করেছে ইস্টবেঙ্গল দল। অতীতের পরিসংখ্যান ভুলে এ বারে আই লিগে দুরন্ত অ্যাওয়ে ফর্মটা ধরে রাখতে মরিয়া তারা। পাঁচটি অ্যাওয়ে ম্যাচের চারটিতেই জিতেছে মরগ্যান ব্রিগেড। তাই বর্তমান ছন্দে ভর করে লাজং গাঁট টপকানোই লক্ষ্য মরগ্যানের।

ম্যাচ শুরু বিকেল ৪টে ৩৫ মিনিটে। সরাসরি টেন ২ চ্যানেলে।

 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here