ভোপালের ফ্ল্যাটে লোহার বাক্সে মিলল বাঁকুড়ার মেয়ের দেহ, ধৃত প্রেমিক

0
98

ভোপাল: গত বছরের জুন মাসে আমেরিকায় চাকরি পেয়েছেন বলে বাড়ি ছেড়েছিলেন আকাঙ্খা শর্মা। বাঁকুড়ার রবীন্দ্রপল্লিতে বাবা-মার সঙ্গে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন তিনি। তারপর নিয়মিত যোগাযাগও ছিল বাড়ির সঙ্গে। তারপর মাস দুয়েক হল যোগাযোগ বন্ধ করে দেন আকাঙ্খা। গত ৫ জানুয়ারি পুলিশে ডায়রি করেন ২৮ বছরের আকাঙ্খার বাবা-মা।বৃহস্পতিবার ভোপালের ফ্ল্যাট থেকে তরুণীর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। 

তবে সে দেহ উদ্ধার করতে পুলিশকে ৩ ঘণ্টা কসরৎ করতে হয়। কারণ, মাস দুয়েক আগে আকাঙ্খাকে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে খুন করে তাঁর দেহ একটি লোহার বাক্সে রেখেছিল আকাঙ্খার প্রেমিক উদয়ন দাস। না, সেখানেই শেষ নয়। বাক্সের উপর কংক্রিটের গাঁথনিও করে দিয়েছিল সে। 

ঝাড়খণ্ডের বাসিন্দা উদয়ন বাবার ব্যবসা দেখাশোনা করে। তার মা ঝাড়খণ্ড পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মী। উদয়নকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, অনলাইনে পরিচয় হয় আকাঙ্খা-উদয়নের। পরিচয় থেকে প্রেম। উদয়নের সঙ্গে ঘর ছাড়ে আকাঙ্খা। একসঙ্গে ভোপালে থাকত তারা। কিন্তু কিছুদিন পর উদয়নের সন্দেহ হয়, অন্য কারও সঙ্গে সম্পর্ক হয়েছে আকাঙ্খার। সেই নিয়ে ঝগড়াঝাটির জেরেই আকাঙ্খাকে খুন করে সে।  

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here