ন্যূনতম সহায়ক মূল্য: বাংলার পাটচাষিদের ‘ধোঁকা’ দিচ্ছে কেন্দ্র!

0
614
Jute farmers is west bengal

কলকাতা: গত ২০১৭-‘১৮ আর্থিক বছরে পাটচাষিদের জন্য ন্যূনতম সহায়ক মূল্য (এমএসপি) ঘোষণা করা হয়েছিল ৩,৫০০ টাকা প্রতি কুইন্টাল। এ বার বাজেটেও বেশ কিছু কৃষিজ পণ্যের এমএসপি দেড়গুণ করার কথা ঘোষণা করেছে কেন্দ্র সরকার। কিন্তু গত বছর কি পাট চাষিরা সরকার নির্ধারিত  মিনিমাম সাপোর্ট প্রাইস বা এমএসপি দরে পাট বিক্রি করতে পেরেছেন?

পাটচাষিদের সঙ্গে কথা বলে জানা গিয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে যে পরিমাণ পাট উৎপাদিত হয় তার কয়েক শতাংশ কিনতে পারে কেন্দ্র।২০১৬-১৭ অর্থ বর্ষে এ রাজ্য থেকে কেন্দ্র পাটের গাঁট (১৭০ কেজির বেল) কিনেছিল ৫৬ হাজার। উলটো দিকে উৎপাদন হয়েছিল ৮৫ লক্ষ। ২০১৭-‘১৮ আর্থিক বছরেও সেই ছবি মোটেই বদলায়নি। এ বছর ৬৫ লক্ষ গাঁট পাট উৎপাদনের সম্ভাবনা রয়েছে। বছরের প্রথমার্ধে কেন্দ্র কিনছে মাত্র ২৮ হাজার গাঁট পাট। ফলে বাকি উৎপাদিত পাট নিয়ে কী করবেন কৃষকেরা? তাঁদের কিন্তু ওই অবিক্রীত পাট তুলে দিতে হবে খোলা বাজারেই।

খোলা বাজারে পাট বিক্রি করে যে টাকা আসে তা উৎপাদন ব্যয়ের ধারকাছেও আসে না বলে জানাচ্ছেন চাষিরা। এক পাটচাষি বলেন, খোলা বাজারে ৮০০-১০০০ টাকা কুইন্টালেও পাট বিক্রি করতে বাধ্য হতে হয়। এ বিষয়ে উত্তর ২৪ পরগনা জেলা সিপিএমের সম্পাদক মৃণাল চক্রবর্তী বলেন, কেন্দ্র ঘোষণা করেছিল ৩৫০০ টাকা প্রতি কুইন্টাল দরে পাট কেনা হবে সরকারি উদ্যোগে। বাস্তবে তা হয়েছে ২৩০০ টাকায়। যেখানে উৎপাদন ব্যয় ২৭৫০ টাকা, সেখানে কেনা হচ্ছে প্রায় সাড়ে চারশো টাকা কমে। এর বাইরে রয়েছে চাষির শ্রমের মূল্য।

মৃণালবাবু বলেন, ‘একটু খোঁজ নিয়ে দেখুন সরকার সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে পণ্য কেনার জন্য যে কেন্দ্রগুলি খুলেছে সেগুলির হাল কী? বেশির ভাগ কেন্দ্রেই নেই কর্মী। এত বড়ো একটা জেলা উত্তর ২৪ পরগনা, সেখানে সরকারের ক্রয় কেন্দ্র রয়েছে মাত্র সাতটি। কৃষককে স্রেফ ভাঁওতা দিচ্ছে মোদী সরকার। ধোঁকা দিয়ে ক্ষমতায় টিকে থাকার চেষ্টা চালাচ্ছে ‘

অন্য দিকে রাজ্যের খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন, পাটচাষিদের পাশে দাঁড়াতে রাজ্য সরকার ৬ কোটি ২৫ লক্ষ চটের বস্তা কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ বছর রাজ্যে উৎপাদিত অতিরিক্ত চাল মজুত ও পরিবহণের কাজে ওই বস্তা প্রয়োজন হবে। রাজ্য এই বিশাল পরিমাণ চটের বস্তা কিনে নিলে এক দিকে যেমন ধুঁকতে খাকা চট কলগুলির হাতে কাজ জুটবে তেমনই পাটচাষিদেরও সুরাহা হবে।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here