দক্ষিণবঙ্গে শনিবার থেকে ফের সক্রিয় হতে পারে বর্ষা, উত্তরবঙ্গে জারি প্রবল বৃষ্টি

0
1726
rain

কলকাতা: এক দিকে মাত্র তিন দিনের প্রবল বৃষ্টিতেই এক ধাক্কায় অনেকটা বর্ষার ঘাটতি কমিয়ে ফেলেছে উত্তরবঙ্গে, অন্য দিকে দক্ষিণবঙ্গে উল্লেখযোগ্য বৃষ্টির অভাবে বাড়তি বৃষ্টির হার কিছুটা কমেছে। তবে দক্ষিণবঙ্গে শনিবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ কিছুটা বাড়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। দু’এক পশলা ভারী বৃষ্টিও হতে পারে।

গত সপ্তাহের শুক্রবার শেষ বার ভারী বৃষ্টি হয়েছিল কলকাতায়। তার পর বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টি হলেও, ভারী বৃষ্টি হয়নি। মোটামুটি একই অবস্থা দক্ষিবঙ্গের বাকি জেলাগুলিতে। বৃষ্টি না হওয়ায় এক দিকে যেমন বন্যা পরিস্থিতির অনেকটাই উন্নতি হয়েছে, আবার তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় অস্বস্তিও বেড়েছে।

আবহাওয়ার পরিভাষায় একে বলে ‘মনসুন ব্রেক’, যখন বেশ কিছু দিন স্তিমিত হয়ে যায় বৃষ্টিপাত। এটা বর্ষার একেবারে স্বাভাবিক নিয়ম। কিছু দিন ‘মনসুন ব্রেক’ থাকলে স্বাভাবিক নিয়মেই ফের সক্রিয় হয়ে ওঠে বর্ষা। শনিবার থেকে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা সক্রিয় হয়ে ওঠার কারণও মূলত এটাই। বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ রবীন্দ্র গোয়েঙ্কার কথায়, “স্বাভাবিক কারণেই মৌসুমী বায়ু সক্রিয় হবে। এর পাশাপাশি উত্তরপ্রদেশ এবং সংলগ্ন বিহারে একটি ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এর ফলে দক্ষিণবঙ্গের ওপর দিয়ে জলীয় বাষ্প ঢুকবে। বৃষ্টি বাড়ার পেছনে এটাও একটা কারণ।” বুধবার ১৬ আগস্ট পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা সক্রিয় থাকার সম্ভাবনা দেখছেন রবীন্দ্রবাবু।

প্রবল বৃষ্টিতে ভাসছে উত্তরবঙ্গ

পূর্বাভাস মতোই প্রবল বৃষ্টি শুরু হয়েছে উত্তরবঙ্গে। গত তিন দিন ধরে চলা এই বৃষ্টির ফলে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন নদীর জল বেড়েছে। সব থেকে বেশি বৃষ্টি হয়েছে কোচবিহারে। গত তিন দিনে প্রায় ৬০০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে শহরে। শুক্রবারও বৃষ্টি চলছে। কোচবিহারের পরেই বৃষ্টির নিরিখে রয়েছে আলিপুরদুয়ার। এখানে তিন দিনে বৃষ্টি হয়েছে সাড়ে চারশো মিলিমিটার। ভারী থেকে অতিভারী বৃষ্টি হচ্ছে জলপাইগুড়ি, শিলিগুড়ি এবং পাহাড়েও।

রবীন্দ্রবাবুর মতে, মৌসুমী অক্ষরেখা উত্তরবঙ্গের ওপরে অতিমাত্রায় সক্রিয় থাকার ফলেই এ রকম বৃষ্টি হচ্ছে। তুলনায় কিছুটা কম হলেও ভালোই বৃষ্টি হচ্ছে মালদহ, দুই দিনাজপুর জেলা। আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস, আগামী তিন দিন এই রকম বৃষ্টি চলবে উত্তরবঙ্গে। তবে সোমবার থেকে বৃষ্টির পরিমাণ কিছুটা কমতে পারে।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here