আচমকা চিটফান্ড তদন্তে দিল্লি থেকে পাঠানো হল অতিরিক্ত ছয় অফিসারকে, লক্ষ্য কি অন্য কিছু?

0
1061
CBI

কলকাতা: সারদা, রোজভ্যালি-সহ প্রায় ৩০টি বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার বিরুদ্ধে অভিযোগের তদন্ত নতুন উদ্যমে শুরু করল সিবিআই। নয়াদিল্লি থেকে কলকাতায় উড়িয়ে নিয়ে আসা হল অতিরিক্ত ছয় জন তদন্তকারী অফিসারকে। প্রশ্ন উঠছে, এত দিন ঢিমে তালে তদন্তের কাজ চালু থাকলেও আচমকা কী এমন ঘটল, যাতে চিটফান্ড তদন্ত নিয়ে নড়েচড়ে বসল কেন্দ্র?

সূত্রের খবর, সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সে সিবিআইয়ের কার্যালয়ে চিটফান্ড তদন্তে গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দল কাজ করে চলেছে গত দু’বছর ধরে। এ বার সেই দলের সঙ্গে সম্মিলিত ভাবে কাজ করার জন্য ওই ছয় জন অফিসারকে পাঠানো হয়েছে। বুধবার পুরোনো এবং নতুন সদস্যরা একটি বৈঠকে মিলিত হবেন বলে খবর পাওয়া গিয়েছে।

গত ১২ জানুয়ারি কলকাতার একটি চিটফান্ডের বিরুদ্ধে অভিযোগের ভিত্তিতে প্রায় ২০টি জায়গায় হানা দেয় সিবিআই। সেখান থেকে উদ্ধার হয় কিছু গোপন ফাইল। গত নভেম্বর মাসে দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার এসিজেএম এই সংক্রান্ত চার্জশিট দাখিল করা হয়েছিল। যেখানে কলকাতার ওই বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থার বিরুদ্ধে প্রায় ৩৩৫ কোটি তছরূপের অভিযোগ ছিল। একটি মহলে প্রশ্ন উঠছে, তা হলে কি ওই সংস্থার অফিস থেকে প্রাপ্ত গোপন ফাইলে এমন কোনো অজানা তথ্যের হদিশ মিলেছে, যার জেরে বাড়তি তদন্তকারী নিয়োগের সিদ্ধান্ত নিতে হল কেন্দ্রীয় সরকারকে?

বিজ্ঞাপন

তবে এই যুক্তিকে কোনো মতেই মান্যতা দিচ্ছে না রাজনৈতিক মহল। মূলত কেন্দ্র-রাজ্য টানাপোড়েনের দিকে তাকিয়েই তারা বলছে, তদন্ত চলছে তদন্তের মতোই কিন্তু এই সিদ্ধান্ত নেহাতই চটকদারি। হঠাৎ বাড়তি অফিসার নিয়োগ বা নতুন উদ্যম গ্রহণের মাধ্যমে রাজ্যের তৃমমূল সরকারকে বাগে আনার অন্য এক কৌশলকেও ঝেড়ে ফেলা যায় না। সামনে পঞ্চায়েত নির্বাচনে বিজেপি হয়তো নতুন করে তুলে ধরতে চাইছে চিটফান্ড ইস্যুকে। যাতে বাড়তি অক্সিজেন জোগাতে পারে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দলের চমকপ্রদ কিছু তথ্য।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here