বিদেশি পর্যটক টানতে পেট্রোল পাম্পের আধুনিকীকরণ করছে রাজ্য

0
63

কলকাতা : বিদেশি লগ্নি টানতে পেট্রোল পাম্পের আধুনিকীকরণ করছে রাজ্য পর্যটন দফতর। দফতর সূত্রের খবর, পশ্চিমবঙ্গ পর্যটনের  ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডার শাহরুখ খানের তথ্যচিত্রটা বিদেশি পর্যটকদের কাছে খুবই সাড়া ফেলেছে। তাই বিদেশি পর্যটক টানতে আর তাঁদের সুবিধার কথা ভেবেই এই বিশেষ উদ্যোগ রাজ্য পর্যটন দফতরের। 

এই ক্ষেত্রে রাজ্যের হাইওয়েগুলির পেট্রোল পাম্পগুলিতে কেবল গাড়ির জ্বালানি ভরার জন্যই নয়, অন্যান্য ক্ষেত্রেও বিদেশে যে ধরনের সুযোগ সুবিধা আছে সেই সব ধরনের ব্যবস্থা করার কথাই চিন্তা করেছে দফতর। 

বিদেশি পর্যটক টানার ক্ষেত্রে ২০১৫ সালে রাজ্যের স্থান ছিল দেশে পঞ্চম। এ বার সেই স্থান আরও এগিয়ে আনতে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে দফতর। তাই রাজ্যের হাইওয়েগুলির ওপর পিপিপি মডেলে তৈরি পেট্রোল পাম্পগুলির সমস্ত জমি চিহ্নিত করার কাজ শুরু হয়েছে। এই সব অতিরিক্ত জায়গায় তৈরি করা হবে ক্যাফেটেরিয়া, মেডিসিন শপ, স্টেশনারি শপ, আধুনিক পদ্ধতিতে সজ্জিত বাথরুম, শিশুকে মাতৃদুগ্ধ খাওয়ানোর জন্য বিশেষ ঘরের ব্যবস্থাও।

এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকার ইতিমধ্যেই রাজ্যে স্থান চিহ্নিত করে দিয়েছে। তার মধ্যে রয়েছে, কলকাতা-দিঘা, কলকাতা-বকখালি যাওয়ার পথে সমস্ত পেট্রোল পাম্প। রাজ্য পর্যটন দফতর এই কাজের দায়িত্ব দিয়েছে ওয়েস্ট বেঙ্গল ট্যুরিজম ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন লিমিটেড (ডব্লিউবিটিডিসিএল)-কে । সংস্থাটিও কাজ শুরু করে দিয়েছে বলে খবর দফতর সূত্রে 

পর্যটন দফতরের প্রধান সচিব অজিত কুমার বর্ধন বলেন, সরকার আপাতত ৫টি হাইওয়ের ওপর এমন ব্যবস্থা করার পরিকল্পনা করছে। তার মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিভিন্ন হাইওয়ের পাম্পগুলিও। তিনি জানান, যে সব পেট্রোল পাম্পের নিজস্ব জমি নেই সে ক্ষেত্রে জেলাশাসকদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে উপযুক্ত জমির ব্যবস্থা করার জন্য। ডব্লিউবিটিডিসিএলের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সি মুরুগান জানান, সব রকম সুবিধের সঙ্গে থাকবে কিচেন কাম রেস্তোরাঁও। থাকবে ওয়াইফাইয়ের সুবিধে, পার্কিং-এর সুব্যবস্থাও। 

পর্যটন দফতর সূত্রের খবর, কথা হয়েছে আইওসি, এইচপিসিএল, বিপিসিএলের মতো সংস্থার সঙ্গেও। এই ব্যবস্থা বাস্তবায়িত হলে পর্যটকের সংখ্যা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়বে কর্মসংস্থানের সুযোগও। এর ফলে এলাকাভিত্তিক উন্নয়ন ত্বরান্বিত হবে। 

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here