শনিবার থেকে তিরিশ ছোঁবে তাপমাত্রা, বিদায় নেওয়ার পালা শীতের

0
spring in kolkata

ওয়েবডেস্ক: এ বার সত্যি সত্যি বিদায় নেওয়ার পালা শীতের। অন্য বারের থেকে একটু তাড়াতাড়িই বিদায় নিতে চলেছে শীত। শনিবার থেকে ক্রমশ বাড়তে শুরু করবে পারদের সর্বোচ্চ মাত্রা।

এ বার কলকাতা তথা সারা রাজ্যেই ভালো খেল দেখিয়েছে শীত। শীতের দাপট এতটাই বেশি ছিল যে গোটা জানুয়ারি মাসে, কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা মাত্র একবার স্বাভাবিকের বেশি ছিল। গড়ে ১০ থেকে ১২ ডিগ্রির মধ্যে ঘোরাফেরা করেছে পারদ। রাজ্যের বাকি অঞ্চল তো প্রবল শৈত্যপ্রবাহের কবলে পড়েছিল।

এই সপ্তাহের শুরুতে সোমবার থেকে শীতের দাপট অনেকটাই কমে গিয়েছে। তাও সর্বোচ্চ এবং সর্বনিম্ন পারদ ছিল স্বাভাবিকের আশেপাশেই। শুক্রবার সর্বনিম্ন পারদ রেকর্ড করা হয়েছে ১৫.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। এই পারদ এ বার ক্রমশ ঊর্ধ্বমুখী হবে বলে জানিয়েছেন বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা।

বিজ্ঞাপন

আগামী ৭২ ঘণ্টায় কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা তিরিশ এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৭ ডিগ্রিতে ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন তিনি। দক্ষিণবঙ্গের, বিশেষ করে পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে দিনের তাপমাত্রা তিরিশ পৌঁছোলেও রাতের তাপমাত্রা এখনও ১২ থেকে ১৫ ডিগ্রির কাছাকাছি ঘোরাফেরা করবে।

এ বার যে এত তাড়াতাড়ি শীত বিদায় নেওয়ার ইঙ্গিত দিচ্ছে তার কারণ কী?

রবীন্দ্রবাবু এর জন্য দু’টো কারণের কথা উল্লেখ করেছেন। এই মুহূর্তে মলদ্বীপের কাছে একটি নিম্নচাপ রয়েছে। এর টানে উত্তর ভারত থেকে সমস্ত ঠান্ডা হাওয়া পূর্ব ভারতে না এসে চলে যাচ্ছে দক্ষিণ ভারতের দিকে। অন্য দিকে বাংলাদেশ উপকূলে একটি ঘূর্ণাবর্তের ফলে ধীরে ধীরে জলীয় বাষ্প ঢুকে পড়ছে দক্ষিণবঙ্গের বায়ুমণ্ডলে। তবে দক্ষিণবঙ্গে তাপমাত্রা বাড়লেও উত্তরবঙ্গে এখনও ঠান্ডা বজায় থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

রবীন্দ্রবাবুর ইঙ্গিত, আগামী সপ্তাহের পুরোটাই কলকাতার আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকবে। সেই মেঘ থেকে বৃষ্টির সম্ভাবনা খুব একটা নেই। তবুও প্রকৃতির খেয়াল বলে কথা। দেখা যাক, দূষণ থেকে মুক্তি দেওয়ার জন্য ক্ষণিকের ছিটেফোঁটা বৃষ্টি কলকাতার মাটিতে পড়ে কি না।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here