বিজ্ঞানীদের চোখে ধরা পড়ল হিমশীতল নতুন গ্রহ

0
98

পৃথিবীর বেশ কাছে, মাত্র ১৭৬ আলোকবর্ষ দূরে একটি নতুন গ্রহের সন্ধান পাওয়া গেছে। তরুণ নক্ষত্র ‘টিডব্লিউ-হাইড্রাই’-র কাছে বিজ্ঞানীরা এই নতুন গ্রহটি অবিষ্কার করেছেন। তাঁদের ধারণা গ্রহটি শৈশব থেকে সবে সবে বড়ো হয়ে উঠতে শুরু করেছে। কিন্তু সে তার শৈশবেই রীতিমতো একটি বরফের দৈত্যে পরিণত হয়েছে। অর্থাৎ আপাতত এটিতে বরফযুগ চলছে। এটি একটি বিরাটাকৃতির বরফের গোলা আকারে বিজ্ঞানীরদের চোখে ধরা দিয়েছে।

তবে শিশু বরফ গ্রহটির সৃষ্টিরহস্য এখনও অবধি অধরা রয়েছে জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের কাছে। তরুণ নক্ষত্র ‘টিডব্লিউ-হাইড্রাই’ যে ১ কোটি বছরের বেশি নয় তা বেশ স্পষ্ট তাঁদের কাছে। ‘ইউপিআই’-এর তথ্য অনুযায়ী, প্রথম দিকের পর্যবেক্ষণ থেকে জানা গেছে, তরুণ নক্ষত্রকে ঘিরে রয়েছে ধুলোকণার বলয়। আর বলয়ের মধ্যে মধ্যে রয়েছে ফাঁকা জায়গা, যেখানে ভরে আছে ছোটো ছোটো ধুলোর কণা। কিন্তু বড় মাপের কণার উপস্থিতি সেখানে এক্কেবারেই নেই। ‘সায়েন্স ডেইলি’ থেকে জানা গেছে, ধূলিকণার এমন আচরণের কারণ হিসেবে বিজ্ঞানীরা মহাকর্ষীয় ক্রিয়াকর্মকেই দায়ী করছেন। বায়ু ও ধূলিকণার মধ্যে মহাকর্ষীয় টান ও সংঘর্ষের কারণেই বৃহদাকৃতির ধূলিকণাগুলি ও-ই ধুলোর বলয়ের বাইরে বেরিয়ে গেছে। আর ধুলোর ছোটো ছোটো কণাগুলো রয়ে গেছে বলয়ের মধ্যেই। আর এই পর্যবেক্ষণের সূত্র ধরেই বিজ্ঞানীরা সন্ধান পান এই বরফ-দৈত্য নবজাত গ্রহটির। জানতে পেরেছেন এই শিশুগ্রহটির আয়তন কতটুকু।

সৌরজগতের অন্যতম সদস্য নেপচুনের থেকে সামান্য বড় এই নতুন গ্রহটি। ‘টিডব্লিউ-হাইড্রাই’-র উজ্জ্বলতা ও কক্ষপথের আকৃতি দেখে শিশুগ্রহটি যে নেপচুনের মতোই একটি হিমশীতল গ্রহ তা আবিষ্কার করেছেন গবেষকরা। পৃথিবী থেকে একে অতি সহজেই পর্যবেক্ষণ করা সম্ভব। ফলে ‘টিডব্লিউ-হাইড্রাই’ বিজ্ঞানীদের কাছে আপাতত গবেষণাগারে পরিণত হয়েছে। এটি নানাভাবে সাহায্য করবে তাঁদের। জাপানের ‘ইবারাকি বিশ্ববিদ্যালয়’-এর গবেষক টাকাশি টাসুকাগোশি জানান, গ্রহ কীভাবে তৈরি হয়, সেই পদ্ধতিও জানা সম্ভব হবে এর ক্রম-পরিণতি দেখে। আর এর বিষয়ে যাবতীয় তথ্য সংগ্রহের জন্য ‘আটাকামা লার্জার মিলিমিটার/সাবমিলিমিটার আররাই’(এএলএমএ)-এর ব্যবহার করছেন তাঁরা।

বিজ্ঞাপন
loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here